গসিপবিনোদন

কোনোও টলিউডের নায়িকা নয়! ছিমছাম সাদামাটা রূপে লক্ষ্মী গুণে সরস্বতী এই সুন্দরীই সোহমের মনের মানুষ

“মা একটু হরলিক্স দাও না, চেটে চেটে খাব”, বছর চারেকের বিট্টুর মুখের এই সংলাপ কয়েক দশক ধরেই ভাইরাল নেট দুনিয়ায়। কিন্তু সেই ছোট্ট বিট্টু এখন একজন নামজাদা টলি নায়ক তথা তৃণমূলের নেতা, তিনি সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty) । দীর্ঘ অভিনয়ের জীবনে অসংখ্য সুপারহিট সিনেমা উপহার দিলেও তার পরিচয় এখনো কিন্তু ‘হরলিক্স বয়’ই (Horlicks) রয়ে গিয়েছে।

একেবারে ছোট বয়স থেকেই অভিনয় জগতের সাথে ওঠাবসা সোহমের। শিশুশিল্পী হিসেবেও তার বিপুল নাম ডাক। ১৯৮৮ সালে ‘ছোট বউ’ দিয়েই তার অভিনয় জীবনের পথচলার শুরু। এই ছবির বিখ্যাত সংলাপই আজও সোহমকে হরলিক্স বয় হিসেবেই জনপ্রিয় করে রেখেছে৷ সত্যজিৎ রায়ের শাখা-প্রশাখা ছবির মাধ্যমেও পরিচিতি পান সোহম।

এরপর যৌবন কালে রাজ চক্রবর্তীর পরিচালনায় ‘প্রেম আমার’ ছবিতে অভিনেত্রী পায়েল সরকারের সাথে অভিনিয় করে টলিউডে বড়সড় কামব্যাক হয় অভিনেতার। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এরপর একের পর এক প্রথম সারির অভনেত্রীদের সঙ্গে ‘ অমানুষ ‘, ‘বোঝে না সে বোঝে না’, ‘গল্প হলেও সত্যি’ র মতো একাধিক হিট ছবি করেছেন তিনি। এই মুহুর্তে একাধিক ওয়েব সিরিজেও দেখা মিলেছে তার।

তবে টলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা হয়েও ইন্ডাস্ট্রির কোনোও সুন্দরীকে মন দেননি তিনি। ২০১২ সালে ৬ বছরের প্রেমিকা তনয়া পালের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন তিনি৷ বর্তমানে তারা দুই সন্তানের মা বাবা তারা৷ ২০১৬ সালে তাঁদের জীবনে আসে প্রথম সন্তান। ছেলের নাম রাখেন সাঁঝ চক্রবর্তী। ২০১৮ সালের ৯ মার্চ দ্বিতীয়বার বাবা হন সোহম। যার নাম আদিয়াশ।

সোহমের স্ত্রী তনয়া সৌন্দর্যে হার মানাতে পারে যেকোনোও টলি সুন্দরীকেও। প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই রাজ চক্রবর্তীর ‘ধর্মযুদ্ধ’ ছবিতে জব্বর-এর চরিত্রে দেখা যাবে সোহম চক্রবর্তীকে। ২০২০-র ৩ এপ্রিল মুক্তি পাচ্ছে শুভশ্রী, সোহম, ঋত্বিত, পার্নো অভিনীত ছবি ‘ধর্মযুদ্ধ’।

Related Articles

Back to top button