বিনোদনসিরিয়াল

ডিঙ্কার কাঁধে পুটু পিসির মাথা! পুজোয় শহর ছেড়ে পাহাড়ের কোলে সময় কাটাচ্ছে সোহিনী-সপ্তর্ষি

বাংলা থিয়েটার (Theatre) জগতের দুই জনপ্রিয় মুখ সোহিনী সেনগুপ্ত (Sohini Sengupta) এবং সপ্তর্ষি মৌলিক (Saptarshi Moulik)। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির এই সেলিব্রেটি জুটির সম্পর্কের রসায়নটা বরাবরই আর পাঁচ জনের থেকে একটু আলাদা। তাই নিজের থেকে ১৫ বছরের ছোটো ডিঙ্কাকে বিয়ে করে গুছিয়ে সংসার করতে ব্যস্ত সোহিনী।

নানান ঝড়ঝাপ্টা সামলেও দীর্ঘ ৮ বছরের সুখী গৃহকোণ তাঁদের। ২০১৩ সালে ‘নাচনী’ নাটক করতে গিয়ে পরিচয় হয় তাঁদের। প্রথম দেখাতেই সোহিনীর প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন সপ্তর্ষি। এরপর সম্পর্কে সিলমোহর দিতে আর বেশী দেরি করেননি তাঁরা। মাত্র তিন মাস প্রেম করার পর ২০১৩ সালের ২রা অগস্ট তড়িঘড়ি রেজিস্ট্রি ম্যারেজ সেরে নিয়েছিলেন এই জুটি।

নিন্দুকদের বাঁকা মন্তব্য এড়িয়ে সবসময়ই তাঁরা বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম ‘হ্যাপি গো লাকি কাপল’। হেসে খেলে দিব্যি কেটে যাচ্ছে সুখী দাম্পত্য জীবন। দুজনেই অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত। তাই সারাবছর ব্যস্ততা ঘিরে থাকে তাঁদের। আর সেই কারণেই, পুজোর ছুটি টাকেই কাজে লাগিয়ে ফেললেন তাঁরা। সঙ্গে যাচ্ছেন সপ্তর্ষীর স্যার অর্থাৎ সোহিনীর বাবা রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্তও।

পুজোর আমেজকে গায়ে মেখেই উৎসবের কটাদিন শহুরে কোলাহল থেকে দূরে একান্তে কিছু সময় কাটাতে
কলকাতার বাইরে ছুটেছেন সোহিনী-সপ্তর্ষী। এবার পুজোয় যে শহর ছাড়ছেন সেকথা আগেই জানিয়েছিলেন শ্রীমতী সিরিয়ালের ডিঙ্কা। এবছর তাঁদের গন্তব্যস্থল মুসৌরি। উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই মা-কে হারিয়েছেন সোহিনী। তাই এবছর মন খারাপের পুজোয় কলকাতা থেকে দূরে থাকতে মুসৌরি পাড়ি সোহিনী-সপ্তর্ষি।

পাহাড়ি সৌন্দর্য উপভোগ করতে গিয়ে হোটেলের রুমে বসেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি শেয়ার করেছেন সপ্তর্ষি।ছবিতে দেখা যাচ্ছে সাদা ধপধপে বিছানায় বসে সপ্তর্ষির কাঁধে মাথা রেখেছেন সোহিনী। তাদের চোখে-মুখে স্পষ্ট ভালোবাসার ছাপ। দুজনের ছবিতেই তা বেশ স্পষ্ট। তাই বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে গুছিয়ে সংসার করতে ব্যস্ত এই জুটি।

Related Articles

Back to top button