ত্বকের সমস্যার সমাধান হবেই হবে! বাড়িতে সহজেই বানান ক্লে ফেসমাস্ক


নিজেকে সুন্দরী দেখাতে সকলেই চাই। আর সুন্দরতা বজায় রাখতে অনেক যত্ন নিতে হয় ত্বকের সাথে অনেক তা খরচ হয়। তার ওপর আজকাল পরিবেশ দূষণ থেকে শুরু করে নানান কারণে ত্বকের অনেক ক্ষতি হয়। সেই সমস্ত দূষণের হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে ও ব্রণ, তৈলাক্তভাব দূর করতে কত কিছুই করতে হয়।

মুখের যত্ন নিতে আজকাল অনেকেই নানান ফেসপ্যাক (Facepack) ব্যবহার করেন। গোল্ড ফেসপ্যাক থেকে শুরু করে ক্লে ফেসপ্যাক (Clay  Facepack) অনেক কিছুই পাওয়া যায় বাজারে। এই ফেসমাস্ক ব্যবহারের ফলে উপকার হয় ঠিকই, তবে এগুলি বেশ খরচ সাপেক্ষ। আসুন আজ বংট্রেন্ডের পেজে আজ জানাবো কিভাবে খুব সহজেই বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারেন ক্লে ফেসপ্যাক। যা ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বক পরিষ্কার হবে ও আরো উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

শুষ্ক ত্বকের জন্য মাটি ও তেল দিয়ে তৈরী মাস্ক

Clay Facemask

যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য এই ফেসমাস্কটি ব্যবহার করা উচিত। আসুন দেখে নি কিভাবে বানাবেন ও কি কি লাগবে এটি বানাতে।

উপকরণঃ

  • ১  চামচ গ্রিন ক্লে
  • ১ চামচ অ্যাপ্রিকট কার্নেল তেল
  • ২-৩ ফোঁটা পামারোসা এসেন্সিয়াল অয়েল

কিভাবে বানাবেনঃ

  • প্রথমে একটি পাত্রে পামারেসা ও অ্যাপ্রিকট কার্নেল তেল মিশাতে হবে।
  • এরপর সেই পাত্রে ক্লে মেশাতে হবে। আর প্রয়োজনে অল্প পরিমান জল দিতে পারেন।
  • এভাবে মিশ্রণটিকে ভালোভাবে মেশালেই ফেসপ্যাক রেডি হয়ে যাবে। যেটা সোজাসুজি মুখে ব্যবহার করতে পারবেন।

এই মিশ্রণটি মুখে ভালোভাবে মাস্কের মত মেখে নিতে হবে। এরপর মিশ্রণটিকে শুকনো হবার জন্য ১৫-২০ মিনিট সময় দিতে হবে। এরপর হালকা উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে নিন। এভাবে কিছুদিন ব্যবহার করলেই তফাৎ বুঝতে পারবেন।

অয়েলি ও সেনসিটিভ ত্বকের জন্য সবুজ ক্লে মাস্ক

Green Clay Facemask

অনেকের ত্বক অয়েলি ও সেনসিটিভ হয়। সেক্ষেত্রে শুষ্ক ত্বকের মাস্ক খুব একটা উপকারী হবে না। তাই তাদের  জন্য প্রয়োজন সবুজ ক্লে মাস্ক। আসুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে এটি বানাবেন ও ব্যবহার করবেন।

উপকরণঃ

  • গ্রীন ক্লে
  • কাওলিন ক্লে
  • গোলাপ জল
  • অ্যালোভেরা জেল

কিভাবে বানাবেনঃ

  • প্রথমে এক দেড় চামচ সবুজ ক্লে নিতে হবে। এরপর তাতে সামান্য পরিমাণে কাওলিন ক্লে মেশাতে হবে। এরপর সেই মিশ্রনে অল্প পরিমান অ্যালোভেরা জেল ও গোলাপজল দিতে হবে।
  • এরপর  মিশ্রণটিকে ভালোভাবে মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে। তবে, যাদের ব্রণ রয়েছে তারা এসেনসিয়াল অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। এসেনসিয়াল অয়েল ত্বকের জন্য বেশ উপকারী।

মিশ্রণটি প্রস্তুত হয়ে গেলে সেটিকে মুখে মেখে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে সেটি শুকিয়ে যাবার জন্য। এরপর সেটিকে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে কিছুদিন ফেসমাস্ক ব্যবহার করলেই দেখবেন চেহারায় গ্লো ফায়ার এসেছে।

 


Like it? Share with your friends!

607
607 points