বিনোদনসিরিয়াল

‘যার গয়না তারেই সাজে!’ উমা সিরিয়ালের নায়িকা বদলের বিতর্কে প্রথমবার মুখ খুললেন শ্রুতি দাস

অভিনয় জগতে পা রাখার অল্প দিনের মধ্যেই সাফল্যের সাথে অভিনেত্রী শ্রুতি দাসের (Shruti Das) সঙ্গী হয়েছে বিতর্ক। কেরিয়ারের শুরুতেই জি বাংলা এবং স্টার জলসার মতো বাংলার প্রথম সারির দু দুটি বিনোদনমূলক চ্যানেলে পরপর দুটি সিরিয়ালের নায়িকা হয়েছিলেন তিনি। সেই সুবাদেই এখন ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পরিচিত নাম শ্রুতি দাস।

অন্যদিকে গায়ের রঙ হোক কিংবা অসম বয়সি প্রেমিকের সাথে সম্পর্ক নিয়ে কটাক্ষ এসব এখন অভিনেত্রীর জীবনের নিত্যদিনের সঙ্গী। তবে বরাবরই সে সবে কান দেন না নায়িকা। বরং নিজের জীবনটাকে নিজের মতো করেই চুটিয়ে উপভোগ করতেই ভালোবাসেন শ্রুতি। অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে উঁকি দিলে মাঝে মধ্যেই দেখা যায় সেই দৃশ্য।

তবে বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই একি খবরে উত্তাল গোটা সোশ্যাল মিডিয়া। চারদিকে একেবারে শোরগোল ফেলে দিয়েছে একটি খবর। শোনা যায় জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক উমার (Uma) নায়িকা বদলে যাচ্ছে। শিঞ্জিনী চক্রবর্তীর (Shinjinee Chakraborty) পরিবর্তে অভিনয় করতে চলেছেন শ্রুতি দাস। এও শোনা যায় শুধু উমা নয় ‘আয় তবে সহচরী’-তে দেবীনার চরিত্রে, ‘ধুলোকণা’-তে ফুলঝুড়ির চরিত্রে, এমনকি ‘মিঠাই’ সিরিয়ালে মিঠাই হয়ে পর্দায় ফেরার ডাক পেয়েছেন শ্রুতি। তাই যেকোনও একটিতে খুব শিগগিরিই তিনি ফিরতে চলেছেন তিনি।

আসলে শুক্রবার ছিল পয়লা এপ্রিল অর্থাৎ মজার ছলে সবাইকে বোকা বানানোর দিন। আর এই দিনেই বাংলার জনপ্রিয় চারটি ধারাবাহিকের কেন্দ্রীয় চরিত্রে মুখ বসিয়ে দেওয়া হয় শ্রুতির। এপ্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছিলেন অভিনেত্রী। তিনি বলেছেন ‘শুক্রবার বোকা বানানোর দিন ছিল। এখনও রেওয়াজটা একেবারে উঠে যায়নি। সেই জায়গা থেকেই আমার সঙ্গে মজা করা হয়েছে। বাকিদের চমকে দিতে। আমি কিন্তু বিষয়টি পুরোপুরি মজার ছলে নিয়েছি।’

সেই সাথে অভিনেত্রী জানান,‘নতুন চরিত্র ছাড়া ফিরব না। যার গয়না তারেই সাজে! চ্যানেলের শিঞ্জিনীদি আর সুশান্তদাকে পাঠিয়েছি ওই পোস্ট। বিষয়টি নিয়ে খুব হাসিঠাট্টা হয়েছে।’ প্রসঙ্গত ‘দেশের মাটি’ শেষ হয়ে যাওয়ার পর অনেক দিন পর্দায় দেখা যাচ্ছে না শ্রুতিকে। কিছুদিন আগেই একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে অভিনেত্রী লিখেছিলেন, ‘আমি তো ইন্ডাস্ট্রির ভাষায় অসাধারণ, অনন্য। তথাকথিত নায়িকা নই। তাই আমায় নিয়ে অন্য ধরনের গল্প ভাবতে হয়। সেটার সঠিক সময় নিশ্চয়ই এখনও আসেনি। এলে কেউ না কেউ, কখনও না কখনও আমায় হয়তো ঠিক ডাকবেন।’

Related Articles

Back to top button