খবরবিনোদনসিরিয়াল

মামাভাত নয় মিমিভাত! বোনপোকে অন্নপ্রাশন খাইয়ে প্রথা ভাঙার চেষ্টা শ্রুতি, নেটিজেনরা বলছেন ‘ফুটেজ খোর’

সমাজের চিরাচরিত প্রথা অনুযায়ী সদ্যজাত শিশুর মুখে প্রথম ভাত দেন মামা বা দাদু। যাকে মামাভাত ও বলা হয়। কিন্তু এবার এই প্রচলিত রীতির বিরুদ্ধেই প্রশ্ন তুললেন টেলিপাড়ার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রুতি দাস (Shruti Das)। নিজের বোনপোকে প্রথম ভাত খাইয়ে শ্রুতি এই পুরুষতান্ত্রিক সমাজের দিকে শ্লেষ মিশিয়ে বললেন, ‘সবসময় মামাভাত কেন! ছোটদের তো মাসীরাই খাওয়ায়। ‘

নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় এদিন শ্রুতি শেয়ার করেছেন বোনপোকে ভাত খাওয়ানোর একগুচ্ছ ঝলমলে ছবি। টকটকে লাল শাড়ি, খোলা চুলে ছোট্ট একটা টিপ আর তার কোলে বসে ভাত খাচ্ছে একরত্তি। পুচকের মিমিভাতের একগুচ্ছ ছবি শেয়ার করে সমাজকে বার্তা দিতে চাইলেও ফের বিতর্কের মুখেই পড়েছেন অভিনেত্রী।

অবশ্য এসব শ্রুতির গা সওয়া হয়ে গিয়েছে। এর আগে বহুবার তিনি চর্চায় থেকেছেন নিজের শ্যামলা গায়ের রঙ থেকে শুরু করে নিজের থেকে বেশ কয়েক বছরের বড় পরিচালকের সাথে প্রেম করার কারণে। আর এবার এই প্রথা ভাঙতে গিয়েই রীতিমতো নেটবাসীর ক্ষোভের মুখে পড়লেন শ্রুতি।

বোনপোর মিমিভাতের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে শ্রুতি লিখেছিলেন ‘নিজের বোনপোকে মিমিভাত খাওয়ানোর মজাই আলাদা। সেইসঙ্গে সাফল্যও। প্রথা ভাঙার আলাদাই আনন্দ। সবসময় কেনই বা মামাভাত হবে? মা মাসিরাই তো খাওয়ায় রোজ বাচ্চাদের। বাবা বা মেসোমশাইরা কদাচিৎ।’ একাংশের নেটিজেনরা যেমন তাকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছে, তেমনই একদল তাকে ফুটেজখোর বলে ধুয়েও দিয়েছেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Shruti Das (@shrutidas_real)

এক নেটিজেন লিখছেন,’এক সন্তান নীতিতে হিন্দু পরিবার গুলির যা অবস্থা, তাতে মামা, কাকু, জেঠু এই সব পরিচয়ের লোকজনই থাকবে না। তাই মাসী ভাত, পিসি ভাত করেই আরেক ধাপ নষ্টামির সূচনা হোক। ‘ আবার কেউবা লিখেছেন, ‘সিরিয়াল-এ সংসার ভাঙা.. আর ফুটেজ খেতে প্রথা ভাঙ্গা এটা ছাড়া আর কাজ নেই এঁদের।। সবতেই প্রবলেম এঁদের।’

Related Articles

Back to top button