গসিপগানবিনোদন

দশ বছর ধরে প্রেম তারপর ভয় দেখিয়ে বিয়ের প্রস্তাব, জানেন নাকি গায়িকা শ্রেয়া ঘোষালের প্রেম কাহিনী!

জনপ্রিয় বাঙালি গায়িকা শ্রেয়া ঘোষালকে (Shreya Ghoshal) কে না চেনে। বাংলা থেকে শুরু করে হিন্দি গানে নিজের গলা দিয়ে মাতিয়ে দিয়েছেন শ্রোতাদের। ছোট থেকে বড় সকলেই শ্রেয়া ঘোষালের গান শুনেছেন। হয়তো জীবনের অনেকটা পথ গায়িকার গান শুনেই কাটিয়েছেন। সম্প্রতি ১২ই মার্চ ছিল শ্রেয়ার জন্মদিন। আর জন্মদিনের আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে খুশির খবর জানিয়েছেন শ্রেয়া। মা হতে চলেছেন তিনি।

শ্রেয়া ঘোষাল Shreya Ghoshal

এবছর ৩৭ এ পা দিলেন টলিউডের বিখ্যাত গায়িকা শ্রেয়া ঘোষাল। ২০১৫ সালে দীর্ঘদিনের প্রেমিক শিলাদিত্য মুখোপাধ্যায়কে (Shiladitya Mukhopadhyay) বিয়ে করেছেন গায়িকা। তবে কবে বিয়ে করেছিলেন সেকথা ছিল গোপনে। হটাৎই সকলকে অবাক করে নিজের বিয়ের ছবি শেয়ার করেন গায়িকা। সাথে সাথেই শুভেচ্ছার ঢল নেমে পড়ে বিয়ের ছবিতে। টলিউডের এই মিষ্টি গায়িকারও রয়েছে দারুন মিষ্টি একটি প্রেম কাহিনী। আজ সেই প্রেমের কাহিনী সন্মন্ধেই বলবো।

শ্রেয়া ঘোষাল Shreya Ghoshal Love Story

গায়িকা শ্রেয়ার কথামত, এক বা দুই বছর নয় টানা দশ বছর ধরে একেঅপরকে ডেট করেছেন। এরপর দুজনে মাইল গোয়াতে একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। আর সেখানেই হটাৎ শ্রেয়াকে বিয়ের প্রপোজাল দে শিলাদিত্য। প্রপোজালে হ্যাঁ বলেন গায়িকা, তারপরেই হয় শুভ পরিণয়। তবে প্রপোজাল নিয়েও রয়েছে একটি মজার গল্প, যেটা শ্রেয়া নিজেই শেয়ার করেছিলেন এক সাক্ষাৎকারে।

শ্রেয়া ঘোষাল Shreya Ghoshal Love Story

শ্রেয়া বলেন, ‘আমার খুব ভালো ভাবেই মনে আছে গোয়াতে আমায়  প্রপোজ করার জন্য রিংটা বের করতে ‘কাঠবেড়ালি’ বলে হটাৎ চিৎকার করে উঠেছিল শিলাদিত্য। এই শুনে আমি কোথায় কাঠবেড়ালি কোথায় কাঠবেড়ালি করে এদিক ওদিক খুঁজতে থাকি। সেই সুযোগেই বক্সের ভেতর থেকে আংটিটা বের করে নেই শিলাদিত্য। তারপর সেই আংটি দিয়েই উইল ইউ ম্যারি মি বলে বিয়ের প্রপোজাল দিয়েছিল ও আমায়’।

শ্রেয়া ঘোষাল Shreya Ghoshal Love Story

প্রপোজের সেই মুহূর্ত আজ অম্লান হয়ে রয়েছে গায়িকা শ্রেয়া ঘোষালের স্মৃতিতে। অবশ্য থাকারই কথা প্রিয় মানুষটার মনের কথা জানিয়ে প্রপোজ করা  কি আর কেউ ভুলতে পারে! তবে, বর্তমানে বিয়ের ৬ বছর পরে এখন নিজেকে নিয়ে বেশ খানিকটা যত্নশীল গায়িকা। শরীরে নতুন প্রাণের অনুভূতি যে আলাদাই অনুভূতি তা বেশ ভালোই বুঝতে পারছেন শ্রেয়া। এখন অপেক্ষা শুধু ফুটফুটে এক রাজকুমার বা রাজকুমারীর আসার।

Related Articles

Back to top button