বলিউড জগতের কিছু বিয়ে যেগুলি রেকর্ড করেছিল সবচেয়ে স্বল্পসময়ের সম্পর্ক হিসাবে।

বলিউড ও টলিউডের বিয়ে নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে চর্চার শেষ নেই। কোনো অভিনেত্রীর নতুন সম্পর্ক হোক বা বিয়ে, সম্পর্ক ভাঙা থেকে বিবাহ বিচ্ছেদ সবকিছুই সমালোচিত হয় আজকের ইন্টারনেটের যুগে। বলিউডে ও টলিউডে বিয়ে আজকাল খুব বেশি দীর্ঘ স্থায়ী হয়না বলেই মনে হয়। আগে একসময় বিয়ে মানে জন্মজন্মান্তরের সম্পর্ক মনে করা হত যেটা এখনকার দিনে অনেকেই ভুলে গেছে।

এবার বলিউড ও টলিউড ইন্ডাস্ট্রীর স্বল্পতম বিয়ে গুলির তালিকা রইল আপনাদের জন্য যা জানলে হয়তো আপনিও অবাক হবেন। জানলে অবাক হবেন তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের কারণ গুলিও। কারোর বিয়ে টিকেছিল ১ বছর তো কারোর মাত্র কয়েক মাস! আসুন জেনে নিন সেই সিলেব্রিটিদেরকে।

১. কিশোর কুমার ও যোগিতা বালি ( Kishore Kumar & Jogita Bali)

 

 

কিংবদন্তি  গায়ক কিশোর কুমার ও  অভিনেত্রী যোগিতা বালি ১৯৭৬ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। যদিও যোগিতা বালি তার তৃতীয় স্ত্রী ছিলেন তাও সেই বিয়েও টেকেনি বেশি দিন। মাত্র ২৪ মাস অর্থাৎ ২ বছরেরই ভেঙে যায় বিয়ে। কিশোর কুমারকে ছেড়ে যোগিতা বালি বাঙালি অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী কে বিয়ে করেন।

২. সম্রাট ডাহাল ও মনীষা কৈরালা ( Samrat Dahal & Manisha Koirala )

 

 

বলিউড অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা ২০১০ সালে ব্যবসায়ী সম্রাট ডাহালের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের পরে পরেই দুজনের সম্পর্কে সমস্যার শুরু হয়। অভিনেত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পরে তাই ফেসবুকে লিখেছিলেন, “আমার স্বামীই হল আমার সবচেয়ে বড় শত্রূ”। তবে মাত্র ২ বছর পরেই দুজনের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে  যায়।

৩. করন সিং গিল ও মল্লিকা শেরাওয়াত ( Karan Singh Gill & Mallika Sherawat )

 

 

বলিউড অভিনেত্রী মল্লিকা শেরাওয়াত নিজের বিয়ের কথা যদিও মেনে নিতে চাননি, তবে তার বিয়ের ছবি ফাঁস হয়ে গিয়েছিল। বলিউডের এই অভিনেত্রী বলিউডে প্রবেশের পূর্বে এয়ারহোস্টেস ছিলেন ও বিয়ে করেছিলেন করন সিং গিল নামক এই পাইলটকে। যদিও বলিউডের প্রতি তার টান ছিল অগাধ তাই মাত্র ১২ মাসের মধ্যেই তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। কারণ মল্লিকা চেয়েছিলেন কেরিয়ারে মনোনিবেশ করতে।

৪. মুকেশ আগারওয়াল ও রেখা ( Mukesh Agarwal & Rekha )

 

 

বলিউডের বিখ্যাত সুন্দরী নায়িকা রেখা ১৯৯০ সালে দিল্লির ব্যবসায়ী মুকেশ আগার্লকে বিয়ে করেন। কিন্তু দীর্ঘস্থায়ী হতাশার জেরে বিয়ের মাত্র ১ বছরের মধ্যেই আত্মহত্যা করেন ব্যবসায়ী মুকেশ। যার ফলে বিয়ের মাত্র ১ বছরের মধ্যেই রেখার বিবাহিত জীবন শেষ হয়।

৫. পুলকিত সম্রাট ও শ্বেতা রোহিরা ( Pulkit Samrat & Sweta Rohira )

 

 

বলিউড অভিনেতা পুলকিত সম্রাট তার দীর্ঘদিনের বান্ধবী শ্বেতা রোহিরাকে ২০১৪ তে বিয়ে করেন। কিন্তু আশ্চর্যজনক ভাবে মাত্র ১১ মাস টিকেছিল এই বিয়ে। দীর্ঘদিনের প্রেম থাকলেও অভিনেতা পুলকিত  অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতমের সাথে গভীরভাবে আবদ্ধ হয়ে পড়েন যার ফলে মাত্র ১১ মাসের মধ্যেই তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

৬. সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা ও দিব্যা ভারতী ( Sasjid Nadiadwala & Divya Bharati )

 

 

বিখ্যাত পরিচালক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর প্রেমে পড়েন। দুজনে বিয়েও করেন ১৯৯২ সালে,কিন্তু সেই বিয়ে বেশি দিন টেকেনি। বিয়ের মাত্র ১১ মাসের মধ্যেই দুঃখজনক ভাবে তাদের বিবাহিত জীবন শেষ হয়ে যায়। দিব্যা ভারতী এপার্টমেন্টের থেকে পড়ে মারা যান। যদিও এটি আত্মহত্যা, এক্সিডেন্ট নাকি মার্ডার সেটা এখনো জানা যায়নি।

৭. করণ সিং গ্রোভার ও শ্রদ্ধা নিগাম ( Karan Singh Grover & Shraddha Nigam )

 

 

টেলিদুনিয়ার এই হ্যান্ডসাম অভিনেতা ২০০৮ সালে তার প্রেমিকা শ্রদ্ধা নিগমের সাথে বিয়ে করেন। তবে তার বিবাহ বহির্ভুত সম্পর্কের জেরে মাত্র ১০ মাসেই তাদের বিয়ে ভেঙে যায়। এরপর তিনি বলিউড অভিনেত্রী বিপাশা বাসুকে বিয়ে করেন।

৮. ভারত নরসিংহানি ও চাহাত খান্না ( Bharat Narsinghani & Chahat Khanna )

 

 

একদা বিখ্যাত টিভি সিরিয়াল বাড়ে যাচ্ছে লাগতে হায় এর অভিনেত্রী চাহাত খান্না ব্যবসায়ী ভারত নরসিংহানিকে বিয়ে করেন ২০০৭ সালে। তবে জানলে অবাক হবেন এই বিয়েটি টিকে ছিল মাত্র ৮ মাস। অভিনেত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের এফআইআর করেছিলেন।

৯. মান্দানা কারিমি ও গৌরব গুপ্তা ( Mandana Karimi & Gourav gupta )

 

 

বিগ বস টিভি রিয়ালিটি শো এর প্রাক্তন প্রতিযোগী মান্দানা কারিমি গৌরব গুপ্তা নামক এক ব্যবসায়ীর সাথে ২০১৭ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু তাদের বিয়েটি টিকেছিল মাত্র ৬ মাসের জন্য। এক্ষেত্রেও মান্দানা তার স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন।

১০. আলী মার্চেন্ট ও সারা খান ( Ali Marcht & Sara Khan )

 

২০১০ সালে টিভি রিয়ালিটি শো বিগ বসে আলী মার্চেন্টকে বিয়ে করেন। যদিও হাস্যকর ভাবে বিয়েটি টিকে ছিল মাত্র ২ মাসের জন্য। বিয়ের মাত্র ২ মাসের মধ্যেই সারা  বুঝতে পারেন তার পক্ষে এই সম্পর্কে থাকা সম্ভব নয়। ফলে বিয়ের মাত্র ২ মাসের মধ্যেই বিবাহ বিচ্ছেদ হয় দুজনের।