গসিপবিনোদন

ঘুচতে চলেছে সুখের দিন, পথে বসতে চলেছেন শাহিদ-ঈশানের পিতা! ‘সব টাকা শেষ’ জানালেন স্ত্রী

করোনার ধাক্কায় বহু মানুষ কাজ হারিয়েছেন। জমা পুঁজি ভেঙে দিন চালাতে হয়েছে তাঁদের। তবে শুধুমাত্র সাধারণ মানুষরাই নন, মারণ ভাইরাসের কারণে আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন বিনোদন জগতের বহু তারকাও। কাজ, জমানো টাকা- সব খুইয়ে নিঃস্ব হয়ে গিয়েছে তাঁরা।

করোনার প্রভাবে বিনোদন ইন্ডাস্ট্রি প্রায় থমকে গিয়েছিল। সকল কাজ প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ঘরে বসে থাকতে হয়েছিল বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। এই করোনার প্রভাবেই বলিউডের নামী অভিনেতা শাহিদ কাপুর (Shahid Kapoor) এবং ঈশান খট্টরের (Ishan Khatter) পিতা পথে বসতে চলেছেন! তাঁর স্ত্রী জানিয়েছেন, অভিনেতার জমানো সব টাকা শেষ হয়ে গিয়েছে। আর কিছু নেই তাঁদের কাছে।

Shahid Kapoor Sad

শাহিদ-ঈশান সম্পর্কে ভাই। তবে নিজের নয়, সৎ ভাই এই দুই তারকা। তাঁদের মা এক হলেও, দুই তারকার বাবা আলাদা। শাহিদের বাবা অভিনেতা পঙ্কজ কাপুর, অপরদিকে ঈশানের পিতা হলেন অভিনেতা এবং ভয়েস ওভার আর্টিস্ট রাজেশ খট্টর (Rajesh Khattar)। করোনার কারণে সর্বস্ব খুইয়ে পথে বসতে চলেছেন শাহিদের সৎ পিতা তথা ঈশানের পিতা রাজেশ। সময়ের সঙ্গেই তাঁর পথে বসার দিনও যেন ঘনিয়ে আসছে!

পঙ্কজ কাপুরের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পর রাজেশ খট্টরকে বিয়ে করেন নীলিমা আজিম। জন্ম হয় ঈশানের। এরপর অবশ্য সেই বিয়ে থেকেও বেরিয়ে যান শাহিদ-ঈশানের মা। নীলিমার সঙ্গে বিয়ে ভাঙার পর বন্দনা সজনানির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন রাজেশবাবু। বন্দনাই রাজেশের শোচনীয় আর্থিক অবস্থার বিষয়ে জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, গত ২ বছরে রাজেশের জমানো সব টাকা শেষ হয়ে গিয়েছে। পরিবারের চিকিৎসা এবং ওষুধের খরচ চালাতেই জমানো টাকার সিংহভাগ খরচ হয়েছে।

Rajesh Khattar with Shahid Kapoor and Ishan Khatter

রাজেশ-পত্নী জানিয়েছেন, ২০১৯ সালে সন্তানের জন্মের পর থেকেই ডিপ্রেশনে ভুগছেন তিনি। তাঁর সেই চিকিৎসা করাতেও প্রচুর টাকা খরচ হয়েছে। রাজেশের হাতে কাজও নেই। ফলে এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি থেকে বেরনোর কোনও উপায়ও খুঁজে পাচ্ছেন না তাঁরা। শুধুমাত্র রাজেশ খট্টরই নন, ফিল্মি দুনিয়ার বহু মানুষ করোনার প্রভাবে আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। কিন্তু শাহিদ-ঈশানের পিতা পথে বসতে চলা খবর পেয়ে বেশ অবাক হয়েছেন অনুরাগীরা।

Related Articles

Back to top button