গসিপবিনোদনসিনেমা

শাহীদ আসলে ‘কন্ট্রোল ফ্রিক’,প্রকাশ্যে বেডরুম সিক্রেট ফাঁস করে স্বামীকে বেকায়দায় ফেললেন মীরা

সমালোচকদের বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেশী বয়সের ফারাক নিয়েই সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন অধিকাংশ সেলেব দম্পতি। কথায় আছে ‘বয়স একটা সংখ্যা মাত্র’। কথাটা সকলের ক্ষেত্রেই বিশেষ করে বলিউডের পাওয়ার কাপল শাহীদ কাপুর ( Shahid Kapoor) এবং মীরা রাজপুতের (Meera Rajput) ক্ষেত্রে ভীষণভাবে প্রযোজ্য। তাঁদের মধ্যে বয়সের বিস্তর ফারাক থাকলেও তা কখনই তাঁদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

তথাকথিত ফিল্মি ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে না হলেও ফিটনেস ফ্রিক শাহীদ ঘরনী বলিউড সুন্দরীদের থেকে রূপে গুণে কোনো দিক দিয়ে কম যান না। দিল্লির বাসিন্দা মীরা ২০১৫ সালে মাত্র ২০ বছর বয়সেই বয়সে নিজের থেকে ১৪ বছর বড় শাহীদ কাপুরের সাথে বিয়ে করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন। উল্লেখ্য মীরার সাথে বিয়ের আগে বলিউডের একাধিক অভিনেত্রীর সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন শাহীদ।

কিন্তু কোনো কারণে পরিণতি পায়নি। তবে সেসব নিয়ে কোনো আফসোস নেই শাহীদের। শাহীদের কথায় তাঁর জীবনের খারাপ লাগার সবটুকুই ধুয়ে-মুছে দিয়েছে তাঁর স্ত্রী মীরা রাজপুতের ভালোবাসা। বিয়ের পাঁচ বছরের মধ্যে দুই সন্তানের বাবা -মা হয়েছেন শাহিদ কাপুর এবং মীরা রাজপুত। তাঁদের মেয়ের নাম মিশা আর ছেলের নাম জেইন।

শাহীদ ঘরের মীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত অ্যাক্টিভ থাকেন। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে অনুরাগীদের যোগচর্চায় উৎসাহ বাড়াতে এক ভার্চুয়াল ওয়ার্কশপের আয়োজন করেছিলেন মীরা। সেখানেই এক নেটিজেনের প্রশ্ন নজর কাড়ে মীরার। যেখানে লেখা ছিল কবীর সিং জিন্দাবাদ।

উল্লেখ্য বেশ কিছুদিন আগেই নেহা ধুপিয়ার একটি চ্যাট শোতে গিয়ে নিজেদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক থেকে শুরু করে যৌনজীবন কিংবা বেডরুমের গোপনীয়তা সব কিছু নিয়ে খুল্লামখুল্লা জবাব দিয়েছিলেন শাহিদ ও মীরা।  সেখানেই একটি রাউন্ডে এই মীরার কাছে জানতে চাওয়া হয় বিছানায় তাঁর প্রিয় যৌন অবস্থান কি? এমন প্রশ্ন শুনে শাহীদ লজ্জায় লাল হয়ে গেলেও মীরা সটান জানিয়ে দেন শাহীদ আসলে ‘কন্ট্রোল ফ্রিক’ (Control Freak) তাই বিছানায় কী করতে হব সেটা শাহীদই তাঁকে বলে দেন।

Related Articles

Back to top button