বিনোদনসিনেমা

জেলে আরিয়ান খান! বাবার সাথে মাত্র দু’মিনিট কথা বলেই কেঁদে ভাসালেন শাহরুখ পুত্র

শনিবার গভীর রাতে মাঝ সমুদ্রে বিলাসতরণী কর্ডেলিয়া এমপ্রেস শিপে (Cordelia Empress Ship) চলছিল ‘রেভ পার্টি’। সেই জাহাজেই যে দেদার মাদক সেবন চলবে, আগেই গোপন সূত্রে সেই খবর পৌঁছায় এনসিবির (NCB) কাছে । এরপরই একেবারে ফিল্মি স্টাইলে ছদ্মবেশ ধরে ওই ‘রেভ পার্টি’ তে হানা দেয় এনসিবির আধিকারিকরা।

মুম্বই থেকে গোয়াগামী এই জাহাজ থেকেই শাহরুখ পুত্র (Shah Rukh Khan) আরিয়ান খান-কে (Aryan Khan) গ্রেফতার করে NCB। এরপর আরিয়ানের দুই বন্ধু তার বন্ধু আরবাজ মার্চেন্ট এবং মুনমুন ধোমেচাও গ্রেফতার হয় NCB এর হাতে৷ সূত্রের খবর, ওই পার্টি থেকে উদ্ধার হয়েছে কোকেন, হাশিস, এমডিএমএ। কড়া জিজ্ঞাসাবাদের পর, অবশেষে শাহরুখ পুত্র স্বীকারও করে নেন তিনি মাদক নিয়েছিলেন।

এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই হইচই শুরু হয়ে গিয়েছে বলি পাড়ায়। গ্রেফতার হওয়ার পর বাবার সঙ্গে মাত্র ২ মিনিট কথা বলার সুযোগ পেয়েছেন শাহরুখ পুত্র। কথা বলার পরেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তারকা সন্তান। জেরার সময়েই, ২৩ বছরের আরিয়ান জানিয়েছেন গত ৪ বছর ধরেই মাদক নিচ্ছেন তিনি।

জানা যাচ্ছে, সোমবার তাকে আদালতে তোলার পর তার জন্য জামিনের আবেদন করা যাবে৷ এসবের মধ্যে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য এসেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) হাতে।জানা গেছে রেভ পার্টিতে শাহরুখ পুত্রের মাদক সেবনের পাশাপাশি তাঁর লেন্স রাখার বাক্স থেকে উদ্ধার হয়েছে মাদক। শুধু তাই নয় তল্লাশির এনসিবির দাবি স্যানিটারি প্যাড, ওষুধের বাক্স, জামাকাপড়, অন্তর্বাসের সেলাইয়ের মধ্যেও লুকিয়ে রাখা হয়েছিল মাদক। আরিয়ানের গ্রেফতারি পরোয়ানায় লেখা রয়েছে, ৩০ গ্রাম কোকেন, ২১ গ্রাম চরস, ২২টি এমডিএমএ বড়ি এবং নগদ ১,৩৩,০০০ টাকা উদ্ধার হয়েছে মু্ম্বই থেকে গোয়াগামী প্রমোদতরীর টার্মিনালে।

Related Articles

Back to top button