গানবিনোদন

‘খড়কুটো’ শেষ হতেই বলিউডে পাড়ি! বাংলায় ফিরে শানের সঙ্গে জুটি বাঁধলেন ‘গুনগুন’ তৃণা সাহা

আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকদিনের অপেক্ষা। এরপরই শুরু হয়ে যাবে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গা পুজো (Durga Pujo)। এই মুহূর্তে প্যান্ডেলগুলিতে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। প্রায় প্রত্যেক বাড়িতে চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। সব মিলিয়ে যাকে একেবারে বলে সাজো সাজো রব।

তবে পুজো মানেই যেমন নতুন জামা কেনা, তেমনই কিন্তু নতুন গানও আসা। ২০১০-২০১১ সাল পর্যন্ত এই পুজোর সময়ই প্রত্যেকটি বড় বড় সংস্থা থেকে প্রকাশ করা হতো পুজো স্পেশ্যাল নতুন গানের সিডি, ক্যাসেট।

Shaan

তবে প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে ধীরে ধীরে এই ব্যাপারটা হারিয়ে যেতে বসেছিল। কিন্তু চলতি বছর সেই ধারায় যেন কিছুটা বদল এসেছে। আবার যেন ফিরে এসেছে পুজোর স্পেশ্যাল গানের সেই ধারা। কয়েকদিন আগেই রিলিজ হয়েছে জনপ্রিয় গায়িকা ইমন চক্রবর্তীর গান ‘আইগিরি নন্দিনী’। এবার নিজের পুজো স্পেশ্যাল নতুন  গান নিয়ে চলে এলেন বলিউড কাঁপানো খ্যাতনামা বাঙালি গায়ক শান (Shaan)।

সারা বছর মুম্বইয়ে থাকলেও শান যে বাঙালি সংস্কৃতি ভোলেননি, তা যেন আরও একবার প্রকাশ পেল। সম্প্রতি বর্ধমান রাজবাড়িতে  প্রকাশ হল শানের পুজো স্পেশ্যাল পেপি গান ‘কদম তলায় কে’। বেশ কয়েক বছর পর বঙ্গ তনয় শানকে এমন মজায় মুডে দেখা গেল। এই গানে শানের সঙ্গে রয়েছেন টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী তৃণা সাহাও। তাঁরা ছাড়াও গতকালের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গায়িকা জুন ব্যানার্জিও এবং গীতিনাট্যকার রাজীব চক্রবর্তী।

Shaan and Trina Saha

‘কদম তলায় কে’তে দেখানো হয়েছে, দুই ছেলেমেয়ের পুজোর প্রেমের গল্প। পেশায় দু’জনেই ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। ছেলেটি বেশ লাজুক এবং মেয়েটি ছলবলে এবং মডার্ন। পুজোর জন্য একটি রাজবাড়ি সাজানোর দায়িত্ব দেওয়া হয় দু’জনকে। সেখানেই গড়ে ওঠে দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক। পাশাপাশি একে অপরের সঙ্গে খুনসুটি তো রয়েছেই।

শান জানান, ‘কদম তলায় কে’র জন্য তিনি বেশ এক্সাইটেড। গায়কের কথায়, প্রত্যেক বাঙালির জন্য এটি তাঁর তরফ থেকে দেওয়া পুজোর উপহার। সেই সঙ্গেই তাঁর আশা, মা দুর্গা এই গানটি হিট করিয়ে তাঁকে আশীর্বাদ করবেন। শান এও জানান, ছোটপর্দার গুনগুন অর্থাৎ অভিনেত্রী তৃণা সাহার সঙ্গে কাজ করেও তাঁর বেশ ভালোলেগেছে।

Related Articles

Back to top button