টেক নিউস

ফোন আনলক থাকলেও সুরক্ষিত থাকবে আপনার গোপনীয়তা, শুধু করতে হবে এই সহজ কাজটি

প্রযুক্তি যত উন্নত হয়েছে ততই বেড়েছে স্মার্টফোনের চাহিদা। আজ প্রায় সকলের কাছেই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন রয়েছে, কারোর কারোর তো আবার একাধিক স্মার্টফোন রয়েছে। কিন্তু ইন্টারনেট আর সোশ্যাল মিডিয়াতে এই যুগে স্মার্টফোন সস্তা হলেও মানুষের গোপনীয়তা বড়োই দুর্লভ হয়ে উঠেছে। আজকাল স্মার্টফোন আমাদের ব্যবহৃত অনেক কিছুই জায়গা নিয়ে নিয়েছে। ঘড়ি, ক্যামেরা, নোটবুক থেকে এটিএম কার্ড পর্যন্ত এখন স্মার্টফোনের মধ্যেই মেলে।

কিন্তু স্মার্টফোন আর সোশ্যাল মিডিয়ার এই অনলাইন দুনিয়াতে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য প্রায়শই সমস্যার সৃষ্টি করে। বহুবার এমন ঘটেছে যে আপনি না চাইলেও আপনার ব্যক্তিগত বা গোপন কোনো তথ্য যেটা আপনি হয়তো আপনার ফোনে স্টোর করে রেখেছেন সেটা হ্যাক হয়ে গেছে বা অন্য কেউ দেখে ফেলেছে। এর কারণ হিসাবে অনেকেই ভাবেন যে হ্যাক যার জন্য অনেকেই ফোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা পিন বা পাসওয়ার্ড দিয়ে লক রাখেন।

Screen Pinning Android Security

কিন্তু সত্যি কি এটুকুই যথেষ্ট! অর্থাৎ এমনও তো হতে পারে যে আপনারই চেনা কোনো ব্যক্তি যাকে হয়তো কিছুক্ষনের জন্য আপনার ফোনটি ব্যবহার করতে দিয়েছেন। তার মধ্যেই সে নিজের কাজের সাথে আপনার ফোনে থাকা ব্যক্তিগত সমস্ত তথ্য ঘেটে ফেলছে। অনেক সময়েই আমরা কোনো নির্দিষ্ট কিছু একটা দেখতে ফোন নিয়ে অন্য কারোর দিকে এগিয়ে গেলে সে ফোন হাতে নিয়ে এটা ওটা খুলতে থাকে। এর ফলে যেমন আপনি বিরক্ত হবেন তেমনি আপনার ব্যক্তিগত তথ্য অন্য কারোর দেখে ফেলারও  সম্ভাবনা বাড়বে।

এবার এই সমস্যারই একটি দুর্দান্ত সলিউশান নিয়ে এসেছে আপনাদের জন্য। এর জন্য কোনো টাকা খরচ করতে হবে না, এমনকি কোনো অ্যাপও ইনস্টল করতে হবে না। আসলে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মধ্যে এমন একটি ফিচার রয়েছে যেটা দিয়ে আপনি একটি স্ক্রিনেই আটকে রাখতে পারেন যে কোননো স্মার্টফোনকে। অর্থাৎ যেটা ব্যবহার করার জন্য দিয়েছেন সেটাই ব্যবহার করতে পারবে অন্য কেউ। এছাড়াও অন্য কিছুই সে চাইলেও ব্যবহার করতে পারবে না।

Screen Pinning Android Security

শুনে অবাক লাগছে তাই না! আসলে এই ফিচারটি সন্মন্ধে অনেকেই হয়তো জানেন না। এই ফিচারটির নাম হল স্ক্রিন পিনিং ‘(Screen Pinning)’ আসুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে এই ফিচারটি ব্যবহার করে আপনার ফোনটিকে সুরক্ষিত রাখতে পারেন। শুধু লক অবস্থায় নয়, আনলক অবস্থাতেও সুরক্ষিত থাকবে ফোন।

  • এই ফিচারটি চালু করতে প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে ফোনের সেটিংস অপশনে।
  • এরপর Security & Lock সেটিং এ যেতে হবে। সেখান থেকে Pin Screen / Screen Pinning অপশনটি বেছে নিতে হবে।
  • এবার Screen Pinning ও করে যে অ্যাপটি ব্যবহার করতে দিতে চান সেটি খুলে দিতে হবে ও তারপর বন্ধ করে দিতে হবে।
  • এরপর রিসেন্ট অ্যাপস অপসন থেকে পিন করা অ্যাপটি খুলে নিলেই হবে।

এই ভাবে আপনি যে অ্যাপটি চাইবেন শুধু সেটিই খোলা যাবে। সেটা ছাড়া আর কিছুই খোলা যাবে না।

Related Articles

Back to top button