গসিপবিনোদনসিনেমা

বাবা নোংরা কথা বলে আর মা পর্ণ সাইট চালায়! ছোটবেলায় এমনই ধারণা ছিল সারা আলি খানের

বর্তমানে বলিউডের পতৌদি পরিবারের অন্যতম যোগ্য উত্তরসূরি হলেন সারা আলি খান (Sara Ali Khan)। তিনি হলেন এই পরিবারের বড় সন্তান। ছোট নবাব বলে পরিচিত সইফ আলি খান (Saif Ali Khan), এবং তার প্রথম স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের (Amrita Singh) মেয়ে সারা। এখন তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে গিয়েছে। আর বর্তমানে এই প্রাক্তন সেলিব্রেটি জুটি নিজের নিজের জীবনে সুখে শান্তিতে রয়েছেন।

এককালে বলিউডের পাওয়ার কাপল বলে পরিচিত এই প্রাক্তন সেলিব্রেটি জুটির মেয়ে এখন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় মুখ। অভিনয় জগতে পা রাখার অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই পেয়েছেন তুমুল জনপ্রিয়তা। এতদিনে একথা আর কারও জানতে বাকি নেই যে সারা হলেন ‘মাম্মাস গার্ল।’ তাই অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে ঢুঁ দিলে মেয়ের অনেক ছবিই ধরা পড়ে একসাথে।

সাম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে, কেদারনাথ অভিনেত্রী তার বাবা সইফ আলি খান এবং মা অমৃতা সিং সম্পর্কে বেশ কিছু অজানা তথ্য সম্পর্কে মুখ খুলেছেন। নস্টালজিয়ায় ডুব দিয়ে এদিন ছোটোবেলার একটি মজার ঘটনা শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। তিনি জানান ছোটোবেলায় একটি বিশেষ কারণবশত তিনি তার মা-বাবা দুজনকেই অত্যন্ত খারাপ মানুষ ভাবতেন।

সারার নিজের বাবা-মা সম্পর্কে এমন ধারণা জন্মানোর কারণ হল দুটি সিনেমা। যার মধ্যে একটি হল ‘ওমকারা’ এবং অপর একটি সিনেমা হল ‘কলিযুগ’। উল্লেখ্য ওমরা সিনেমায় সারার বাবা সাইফ অভিনয় করেছিলেন ল্যাংড়া ত্যাগীর ভূমিকায়, যে বাজে ভাষা ব্যবহার করত। অন্যদিকে ‘কলিযুগ’ সিনেমায় অমৃতা অভিনয় করেছিলেন সিমি রায় নামে একজন পর্ণ সাইটের মালিক হিসাবে।

এপ্রসঙ্গে সারা বলেছেন ‘আমার শুধু মনে আছে ওমকারা (২০০৬) এবং কলিযুগ (২০০৫) দেখার পর আমি সত্যিই বিরক্ত হয়েছিলাম।’ এরপরেই হাসতে হাসতে সারা বলেন ‘আমার মনে হয়েছিল আমার বাবা-মা এত খারাপ মানুষ!আসলে তখন আমি খুব ছোট ছিলাম। আমি ভাবতাম আমার বাবা খারাপ ভাষা ব্যবহার করেন। আর আমার মা এমন একজন যিনি একটি পর্ণ সাইট চালান।’ সেইসাথে তিনি আরও জানান তার এমনটা ভাবার অন্যতম কারণ তারা দুজনেই একই বছরে নেগেটিভ রোলের জন্য ‘সেরা অভিনেতা’ হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button