বিনোদনসিনেমাসিরিয়াল

আমার মেয়ে ওর মতো হোক চাইনা! অভিষেকের অনস্ক্রীন মেয়ে তৃণাকে নাম না করেই তোপ সংযুক্তার

প্রায় একমাস হতে চলল টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায় (Abhishek Chatterjee) আজ আর আমাদের মধ্যে নেই। কিন্তু তাঁর মৃত্যুশোক কাটিয়ে উঠতে পারছেন না কেউই। তা সে তাঁর সহ অভিনেতারাই হোন কিংবা স্ত্রী কন্যা। প্রসঙ্গত মৃত্যুর আগে অভিষেক স্টার জলসার দু’দুটি জনপ্রিয় খড়কুটো এবং মোহর -এ দুটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করতেন। এরমধ্যে খড়কুটো সিরিয়ালে অভিনেত্রী তৃণা সাহা অর্থাৎ পর্দার গুনগুনের ড্যাডি চরিত্রে অভিনয় করতেন তিনি।

এই চরিত্রটি দর্শকদের কাছে দারুন জনপ্রিয়। অভিনেতার মৃত্যুর পর ক্যামেরার সামনে তৃণা বলেছিলেন শুধু রিল নয় রিয়েল লাইফেও তাকে অভিনেতা নিজের মেয়ের মতোই ভালোবাসতেন।সম্প্রতি অভিনেতার শেষ ছবির ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে এসে অভিনেতাকে নিয়ে এমনই বেশ কিছু কথা বলেন তাঁর অনস্ক্রিন কন্যা গুনগুন অর্থাৎ তৃণা সাহা (Trina Saha)। কিন্তু এবার তৃণার সেই দাবির বিরুদ্ধে পাল্টা মত প্রকাশ করেন অভিষেক পত্নী সংযুক্তা চ্যাটার্জী (Sanjukta  Chatterjee)। নাম না করেই একটি দীর্ঘ সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে তোপ দাগলেন অভিনেত্রীকে।

সম্প্রতি অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের শেষ ছবি পঞ্চভুজের ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠান ছিল। সেখানেই তাঁর সহ অভিনেতা ও রিল লাইফের ড্যাডির জন্য আসেন তৃণা সাহা। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী সংযুক্তা ও মেয়ে সাইনা(Saina Chatterjee)। মেয়ে সাইনা ছিল অভিষেকের প্রাণ। আদরের মেয়েকে ভালোবেসে নাম দিয়েছিলেন ডল। প্রসঙ্গত ওইদিন ট্রেলার লঞ্চের অনুষ্ঠানে তৃণা বলেন, “মিঠু দা আমাকে বলতেন বড় হয়ে যাতে সাইনা তোর মতো হয়। আমি জানি না কেন এটা বলতেন। তবে আমি চাইব ডল আমার থেকে ভালো মানুষ হোক বড় হোক নিজের কেরিয়ারে।” পাশাপাশি তৃণা বলেন তাকে নাকি অভিনেতা নাম ধরে নয় বরং তৃণা মা বলেই ডাকতেন।

আরও পড়ুনঃ প্রসেনজিৎকে হারিয়ে সেরা অভিনেতা, আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সম্মানিত অভিষেক চট্টোপাধ্যায়

Trina Saha on Abhishek Chatterjee death

এই ঘটনার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের একেবারে সদ্যোজাত অবস্থায় অভিষেকের সাথে করা একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছিলেন সংযুক্তা। সেইসাথে দীর্ঘ পোস্টে অভিষেক পত্নী তৃণার নাম না করেই লেখেন “আমাদের কন্যা ডল, অভিষেক ওকে ভীষণ ভালোবাসত। ডল, যেরকম সেভাবেই ওকে ওর বাবা ভালোবাসত। আমাদের একমাত্র সন্তানকে নিয়ে অভিষেক গর্ব বোধ করত যেভাবে ও ইংরাজী, ফরাসী বলত, অভিষেকের ভালো লাগত। গত সেমিস্টারে ডল৯২ শতাংশ পাওয়ার পর সকলের জন্য পার্টি থ্রো করেছিল অভিষেক। আমাদের সন্তান আলাদা। যেমন সব বাবা-মার ক আলাদা হয়ে থাকে তাঁদের সন্তানরা। আমারা চাই না ডল অন্য কারোও মতো হোক। অভিষেকের সহ অভিনেতা বলেছেন, অভিষেক নাকি চাইত ডল ওর মতো হোক।”

এরপরেই সংযুক্তার আরও সংযোজন “চলুন বাবার তাঁর মেয়ের প্রতি স্নেহকে সম্মান করি। অন-স্ক্রিন ও অফ স্ক্রিনের মধ্যে অনেক পার্থক্য। নিজের কাজের ক্ষেত্রের সঙ্গে ব্যক্তিগত জীবনকে গুলিয়ে ফেলতেন না অভিষেক। চলুন অভিষেকের একমাত্র সন্তানের প্রতি তাঁর ভালোবাসাকে সম্মান করি।”

Related Articles

Back to top button