খবরগসিপবিনোদনভাইরালসিনেমা

অঙ্কুশের হবু স্ত্রী ঐন্দ্রিলাকে বডি শেমিং! ফেসবুকে ব্লক করায় ফেসবুক লাইভ বিস্ফোরক স্যান্ডি সাহা

টলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra)। অভিনেতা তার দীর্ঘদিনের প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা সেনকে (Oindrila Sen) বিয়ে করতে চলেছেন হয়তো খুব শীঘ্রই। তবে সম্প্রতি অঙ্কুশ ঐন্দ্রিলা বেশ চর্চায় চলে এসেছেন একটি বিতর্কের কারণে। ঐন্দ্রিলার ছবিতে ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার (Sandy Saha) মন্তব্যকে নিয়েই শুরু এই বিতর্কের। অভিনেত্রীর ছবিতে একটি ট্রোলিং কমেন্টের জেরে স্যান্ডিকে ব্লক করেছেন অঙ্কুশ হাজরা। শুধু তাই নয় অঙ্কুশ নাকি স্যান্ডিকে হুমকি পর্যন্ত দিয়েছেন।

সমস্ত ঘটনার সূত্রপাত ঐন্দ্রিলার ছবিতে একটি কমেন্টকে ঘিরে। ঐন্দ্রিলা বিচে শুয়ে  একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন ফেসবুকে। সেই ছবিতে স্যান্ডি কমেন্ট করে একটি ছবি দিয়ে। ছবিতে দেখা যাচ্ছিল একটি হাতিকে বিচে শুয়ে থাকতে। স্যান্ডির সেই কমেন্টটি ব্যাপক ভাইরাল হয়ে পরে।  সেখান থেকেই বাধে বিপত্তি।

Sandy Saha Comment on Oindrila Sen Photo

এই নিয়েই চলছে নানা জল্পনা। আর এই জল্পনার আসল ঘটনা সকলের সামনে তুলে ধরতে ফেসবুক লাইভে হাজির হয়েছেন স্যান্ডি সাহা নিজেই। লাইভ ভিডিওতে স্যান্ডি বলে, অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরা নিজের ভেরিফায়েড পেজ থেকে ব্লক করে দিয়েছে আমাকে। স্যান্ডির মতে, ‘অঙ্কুশের অভিযোগ আমি ঐন্দ্রিলাকে যদি শেমিং করেছি। কিন্তু আসলে ছবিটা নিছক মজা করেই কমেন্ট করা’।

লাইভ ভিডিওতে স্যান্ডি বলে, ‘ইন্টারনেটে ছবি সার্চ করতে গিয়ে যে ছবিটা পেয়েছি সেটাই দিয়েছি। হাতির বদলে বেজি, ছুঁচো থাকলে তাই দিতাম! শুধুমাত্র মজার ছলেই কমেন্টটা করা যেটাকে নিয়ে জলঘোলা করা হচ্ছে’। এর পাশাপাশি স্যান্ডির মতে অঙ্কুশ তাকে ইন্ডাস্ট্রি থেকে সরিয়ে দেবার কোথাও জানিয়েছেন। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী অঙ্কুশ এই সম্পর্কে বলেছেন, ‘আমি এতটা বড় হয়ে যায়নি যে আমার কথা পরিচালক ও প্রযোজকেরা শুনবে। তবে যদি কখনো স্যান্ডি সাহার সাথে আমার কাজ করতে অস্বস্তি হয় তাহলে সেটা জানাবো। আর প্রয়োজনে আমি নিজেকে ছবি থেকে সরিয়ে নেব’।

স্যান্ডির মতে, একজন অভিনেতা যদি একজন ছোট আর্টিস্টের জন্য সিনেমা ছেড়ে দেবে বলে তাহলে সেটার অর্থ কি? হিরোকে নয় ছোট আর্টিস্টদেরকেই সরিয়ে দেওয়া হবে। এটাই যদি হয় তাহলে তো টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ পাওয়াই দায় হয়ে পড়বে। এই সমস্ত নিয়ে যখন লাইভ ভিডিও চলছিল তখন এক নেটিজেন কমেন্ট করেন, ‘বডি শেমিং করুক আর নাই করুক ঐন্দ্রিলা প্লাস্টিক সার্জারি করিয়েছে, এটা  সবাই জানে’। কমেন্ট দেখা মাত্রই স্যান্ডি বলে, এসব একদম বলতে নেই। যদিও আমি নিজে প্লাস্টিক সার্জারির একটি ভালো ডাক্তার সাচিন ভার্মার কাছে দেখেছি অভিনেত্রীকে।

Related Articles

Back to top button