বিনোদনসিরিয়াল

একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি! মিঠাইয়ের মতোই গুলি লাগল মিঠির, পরিণতি ভেবেই আঁতকে উঠছেন দর্শক 

‘মিঠাই’ (Mithai) মানেই চমক। বয়স দু বছর পেরিয়ে গেলেও আজও দর্শকদের মনোরঞ্জন করতে সিরিয়ালের প্রতিটা পর্বে থাকে টানটান উত্তেজনা আর নতুন টুইস্ট। আজকালকার বাংলা সিরিয়ালের বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যখন পরকীয়া এবং পারিবারিক অশান্তি হয়ে উঠেছে মূল বিষয়, তখন সেখান থেকে একেবারে অন্য পথে হেঁটে যৌথ বাঙালি পরিবারের মিলেমিশে একসাথে থাকার গল্প শুনিয়ে চলেছে মিঠাই।

প্রথম থেকেই এই সিরিয়ালের মূল ইউএসপি পজিটিভিটি। যৌথ বাঙালি পরিবারের একজোট হয়ে থাকার এই গল্প দেখে গোটা বাংলা ফিরে  পেয়েছে তাদের পুরনো নস্টালজিয়া। সময়ের সাথে সাথে সিরিয়ালের টিআরপি হয়তো কমেছে ঠিকই, কিন্তু জনপ্রিয়তায় আঁচ পড়েনি এক ফোঁটাও। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সিরিয়ালের একাধিক ফ্যান পেজ গুলোর দিকে তাকালেই ছবিটা স্পষ্ট হয়ে যায় আরও।

Wait is over finally mithai is comeback new promo on air

চরম শত্রু আদিত্য আগারওয়ালের ষড়যন্ত্রে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে প্রধান নায়িকা মিঠাইয়ের। এখনও পর্যন্ত তেমনতাই দেখানো হচ্ছে সিরিয়ালে। মিঠাইয়ের মৃত্যুর পর ইতিমধ্যেই বেশ কয়েক বছরের লীপও নিয়ে নিয়েছে সিরিয়াল। তার সাথে ধারাবাহিকের এন্ট্রি হয়েছে হবহু মিঠাইয়ের মত দেখতে নতুন চরিত্র মিঠি।  দেখতে দেখতে বেশ অনেকদিন হয়েছে শাক্যর এই টিউটরও হয়ে উঠেছে মোদক পরিবারের সদস্যদের একজন।

এই সিরিয়ালের নিয়মিত দর্শকরা জানেন এই মুহূর্তে আবার আদিত্য আগারওয়াল ফায়ার এসেছে ধারাবাহিকে। সেইই কিডন্যাপ করেছে মিথি শাক্যকে। এরইমধ্যে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হয়েছে সিরিয়ালের আসন্ন ট্র্যাকের একটি ভিভিও। সেখানে শেষ মুহূর্তে সিদ্ধার্থ গিয়ে পৌঁছালেও গুন্ডাদের গুলির হাত থেকে ছোট্ট শাক্য বাঁচাতে সামনে দাঁড়িয়ে পড়ে মিঠি।

Same as Mithai Mithi also hospitalised after gunshot fans are got exited with upcoming track

ঠিক যেভাবে আগে সিদ্ধার্থকে বাঁচাতে গিয়ে গুলি খেয়েছিল মিঠাই ঠিক সেভাবেই এবার গুলি লাগবে মিঠিরও। ইতিমধ্যেই আসন্ন সেই পর্বের ছবিও ছড়িয়ে পড়েছে নেটপাড়ায়। তার আগেই যদিও হাসপাতালের পোশাকে মিঠিকে দেখে দর্শকরা আগাম ধারণা করেছিল এবার সত্যিই গুলি লাগবে মিঠির। আর এখন সত্যিই অতীতের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে দেখে বেশ মন খারাপ হয়ে গিয়েছে দর্শকদের।

Related Articles

Back to top button