বিনোদনসিনেমা

সম্পর্ক এতটাই তিক্ত ছিল যে খুন করতেও পারতাম! বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে প্রথমবার মুখ খুললেন সামান্থা 

সাউথের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন সামান্থা রুথ প্রভু (Samantha Ruth Prabhu)। কিছুদিন আগেই বলিউডেও ডেবিউ করেছেন অভিনেত্রী। গত বছরেই তার সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে সাউথের জনপ্রিয় সুপারস্টার নাগা চৈতন্যের (Naga Chaitanya)। সেসময় জানা গিয়েছিল দুজনেই বন্ধুত্বপূর্ণভাবে অনেক ভেবে চিন্তেই  আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তাঁরা।

এতদিন বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে কোথাও মুখ খোলেননি অভিনেত্রী। তারপর থেকে বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কখনো কোন মন্তব্য করতে দেখা যায়নি এই অভিনেত্রীকে। তবে সম্প্রতি করণ জোহরের (Karan johar)’কফি উইথ করণ’ (Koffee With karan)টক শোতে এসেছিলেন এই অভিনেত্রী। সেখানে বলিউডের খ্যাতনামা প্রযোজক পরিচালক করণের মুখোমুখি হয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুলেছিলেন অভিনেত্রী।

Naga Chaitanya and Samantha Ruth Prabhu

সেখানে তিনি নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছেন নাগা চৈতানের সঙ্গে তার বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত মোটেই বন্ধুত্বপূর্ণ ভাবে হয়নি। এই বিয়ে নাকি এই বিয়ে নিয়ে নাকি তাদের দুজনেরই ছিল তিক্ত অভিজ্ঞতা। যদিও অভিনেত্রী জানিয়েছেন তিনি আগে থেকে অনেকটাই বেশি শক্ত হয়েছেন।

পাশাপাশি এদিন নিজেদের দাম্পত্য জীবনের তিক্ততার উদাহরণ দিতে গিয়ে অভিনেত্রী জানিয়েছেন তাদের মধ্যে সম্পর্ক এতটাই খারাপ হয়ে গিয়েছিল যে তাদের যদি একটা ঘরে বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং সেখানে যদি কোন ধারালো অস্ত্র থাকে তাহলে  খুন পর্যন্ত করে ফেলতে পারতেন তিনি। এরপর করণ জানতে চেয়েছিলেন  চেয়েছিলেন তাদের সম্পর্ক এখনো কি বন্ধুত্বপূর্ণ হয়নি?

উত্তরে অভিনেত্রী জানিয়েছেন এখনও ঠিক হয়নি তাদের সম্পর্ক। তবে অভিনেত্রী জানিয়েছেন ভবিষ্যতে হওয়ার সম্ভাবনা আছে। প্রসঙ্গত নাগা চৈতানের সাথে সম্পর্কের অবনতি ঘটার পর পরই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নিজের নামের পাশ থেকে ‘আক্কেনেনি’ পদবী তুলে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

সেই থেকে তাদের বিচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে পড়েছিল চারদিকে। এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী  জানান তারা অনেক চিন্তা ভাবনার পরে আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তবে এক দশকের বেশি একসাথে থাকার জন্য এখনও  তাঁদের মধ্যে একটা বাঁধন থেকে গিয়েছে। তবে জীবনের কঠিন সময়ে অনুরাগীদের পাশে পাওয়ার জন্য তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

Related Articles

Back to top button