বিনোদন

গর্ভপাত থেকে শুরু করে পরপুরুষের দিকে নজর! ডিভোর্সের পর মুখ খুললেন সামান্থা

বহুদিনের চলতে থাকা গুঞ্জনকে সত্যি করেই চতুর্থ বিবাহবার্ষিকীর দিন কয়েক আগে বিচ্ছেদের জল্পনায় শিলমোহর দিয়েছেন দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তারকা জুটি সামান্থা আক্কিনেনি (Samantha Akkineni) ও নাগা চৈতন্য (Naga Chaitanya)। গত সপ্তাহের শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাদা আলাদা ভাবে নিজেদের বিচ্ছেদের বিবৃতি ঘোষণা করেছেন এই প্রাক্তন জুটি। এই খবর চাউর হতেই প্রিয় তারকা জুটির বিচ্ছেদের খবরে মুষড়ে পড়েছেন অনুগামীরা।

বিগত চার বছরের দাম্পত্য জীবনে ইতি টেনে, এদিন নাগার্জুন পুত্র চৈতন্য লিখেছেন ‘অনেক আলোচনা এবং চিন্তাভাবনার পর আমি এবং স্যাম (সামান্থা) আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে আমরা বন্ধু। আমি বিশ্বাস করি, সেই বন্ধুত্বই আমাদের মধ্যে এক বিশেষ সম্পর্ককে বাঁচিয়ে রাখবে।’

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সামান্থার নামে রকমারি গুজব ঘটে। শোনা যায়, চৈতন্যের সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীন সামান্থা বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন, আকৃষ্ট হয়েছিলেন পরপুরুষের সাথেও। এছাড়াও চৈতন্যর সাথে পরিবার বৃদ্ধি করতে চাননা বলে নাকি সামান্থা গর্ভপাত ও করিয়েছিলেন। এরপরেই সামান্থার দাম্পত্যে নাকি দূরত্ব বাড়তে শুরু করে। অবশেষে এই সমস্ত বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন সামান্থা।

 

সামান্থা এই প্রসঙ্গে সাফ জানান যে, “আমার ব্যক্তিগত কঠিন সময়ে আপনারা যে দরদ দেখিয়েছেন, তার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আমার প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে উদ্বেগ প্রকাশের জন্য এবং মিথ্যা গুজবের হাত থেকে আমাকে রক্ষা করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। অনেকেই বলছেন, আমার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। আমি নাকি কখনও সন্তান চাইনি। আমি স্বার্থপর। এমনকী এও বলতে ছাড়েনি যে, আমি নাকি গর্ভপাত করিয়েছি। কিন্তু যে কোনও বিচ্ছেদই ভীষণ কষ্টদায়ক। এই কঠিন ক্ষত সারাতে আমাকে নিজের মত ছেড়ে দিন। আমার ওপর অযথা আক্রমণ করে কোনও লাভ নেই।” অর্থাৎ ডিভোর্স নিয়ে চলতে থাকা ব্যক্তিগত আক্রমণের বিরুদ্ধেই এবার মুখ খুললেন সামান্থা।

 

Related Articles

Back to top button