খবরবিনোদনসিনেমা

কপাল খারাপ ফ্লপ যাচ্ছে ছবি, এবার নিজের নামেই সিনেমা হল খুলবেন সলমন, দেবেন ফ্রি টিকিট!

বলিউডের ভাইজান বলতে সকলেই একজনকেই চেনে তিনি হলেন সালমান খান (Salman Khan)। বয়স বাড়ার সাথে সাথে বেড়েছে জনপ্রিয়তা। একসময় একেরপর এক হিট ছবি উপহার দিয়েছিলেন বলিউডে। এমনকি এখনও বছরে একটা অন্তত বিগ বাজেট ছবি মাস্ট! কিন্তু শেষ রিলিজ হওয়া বহুপ্রতীক্ষিত ছবি ‘রাধে (Radhe)’ একপ্রকার ফ্লপ হয়েছে। তাই এবার নতুন চমক নিয়ে হাজির হলেন সালমান খান।

করোনা মহামারীর জেরে দীর্ঘদিন ধরে ছবির রিলিজ আটকে রাখতে হয়েছিল। শেষে সিনেমা হল খুললেও তাতে দর্শক ছিল হাতে গোনা। তাই সিনেমা হলের পাশাপাশি অনলাইন মাধ্যমে রিলিজ হয়েছিল সিনেমাটি। কিন্তু তাতে খুব একটা লাভের মুখ দেখেনি কেউই। তাই এবার আইনক্স বা পিভিআরের মত সিনেমা হলকে টেক্কা দিতে নিজের সিনেমা হল আনতে চলেছেন ভাইজান।

Salman Khan সালমান খান

ভাবছেন একটা দুটো? না তা কিন্তু নয়, আস্ত থিয়েটার চেন খোলার চিন্তাভাবনা করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই নামও দিয়ে ফেলেছেন। নিজের নামের সাথে মিল রেখে নাম রেখেছেন ‘সালমান টকিজ (Salman Takies)’। শুধু তাই নয় নিজের সিনেমা হল গুলির ক্ষেত্রে বিশেষ চিন্তাভাবনা করেছেন সালমান খান। মেট্রো শহরগুলিতে খোলা হবে না এই সিনেমা হল, মূলত ছোট শহরেই প্রথমে খোলা হবে।

এক সাক্ষাৎকারে সালমান খান জানিয়েছেন, ছোট শহরেই সিনেমাহল খোলার পরিকল্পনা ছিল আমাদের, যেখানে মানুষ সিনেমা দেখতে পায় না, মুম্বাইয়ের মত বড় শহরে নয়’।  অনেকদিন আগেই এই পরিকল্পনা করেছিলেন সালমান, এটাই তাঁর স্বপ্ন। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে সেই কাজ পিছিয়ে গিয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, ‘ আমার অনেক আগেই এই কাজ শুরু করে দিতাম, কিন্তু মহামারীর কারণে কাজ বন্ধ করে দিতে হয়েছিল। আমরা আবার কাজ শুরু করে দেব, আর সিনেমা হল খোলা হবেই’।

যেমনটা জানা যাচ্ছে প্রাথমিকভাবে মহারাষ্টেই এই সিনেমাহল চেন খোলার পরিকল্পনা করেছেন সালমান। তবে আগামী এক দশকের মধ্যেই সেটা গোটা দেশের বিভিন্ন রাজ্যের ছড়িয়ে পড়বে। আর সবথেকে ভালো খবর হল নিজের সিনেমাহল গুলিতে টিকিটের দাম কম রাখবেন জানিয়েছেন তিনি। সাথে যে সমস্ত শিশুরা বঞ্চিত তাদের জন্য একেবারেই বিনামূল্যে দেখানো হবে ছবি।

প্রসঙ্গত, সালমান খানের এবছরের দ্বিতীয় ছবি ‘অন্তিমঃ দ্য ফাইনাল ট্রুথ’ ছবিটি শীঘ্রই রিলিজ হতে চলেছে। ছবিতে পুলিশ অফিসারের ভূমিকায় দেখা যাবে ভাইজানকে। এই ছবিতেই বোনের বর আয়ুষকে দেখা যাবে সালমানের বিপরীতে। আর পাঁচটা বলিউডের ছবির থেকে একেবারেই আলাদা এই ছবিটি। কারণ ছবিতে কোনো হিরোইন থাকছে না। যদিও এই বিষয়টি নিয়ে খানিক চিন্তিত রয়েছে পরিচালক মহেশ মঞ্জরেকর।

Related Articles

Back to top button