খবরবিনোদনসিনেমা

মাদককাণ্ডে গ্রেফতার শাহরুখ পুত্র আরিয়ান, দুঃসময়ে পাশে দাঁড়ালেন এক সময়ের শত্রু সালমান

বলিউডে মাদকযোগে নিয়ে আবারো একবার উত্তাল বিটাউন থেকে সোশ্যাল মিডিয়া। গত রবিবার সকাল থেকেই তুমুল আলোচনার ঝড় উঠেছে। এবার মাদক কাণ্ডে উঠে এসেছে তারকা পুত্রের নাম। কে সেই তারকাপুত্র, তিনি হলেন কিং খানের ছেলে আরিয়ান খান (Aryan Khan)। ইতিমধ্যেই তাকে গ্রেফতার করেছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরো (NCB)। আপাতত এনসিবির হেফাজতেই রয়েছেন আরিয়ান।

যেমনটা জানা যাচ্ছে আগামী ৪ই অক্টবর পর্যন্ত NCB হেফাজতেই থাকছেন শাহরুখ খান (Shahrukh Khan) পুত্র। তবে মাদককাণ্ডে ছেলের নাম জড়াতেই চিন্তায় পড়েছেন বাবা মা। ইতিমধ্যেই স্পেনে চলা পাঠানের শুট বাতিল করেছেন কিং খান। ছুটে এসেছেন দেশে। এদিকে স্ত্রী গৌরী খানও ছুটেছেন আদালতে জামিনের জন্য। ইতিমধ্যেই বিখ্যাত আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডেকে আরিয়ানের আইনজীবী করেছেন শাহরুখ খান।

ছেলে গ্রেফতার হওয়ায় রীতিমত চিন্তায় ঘুম উড়েছে মা বাবার। তবে এমন কঠিন সময় শাহরুখ খান পাশে পেয়েছেন ভাইজান সালমান খানকে (Salman Khan)। এই সময় শত্রুতা থাকলেও সে সব মিটে গিয়েছে, তাই শাহরুখের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়াতে হাজির ভাইজান। এদিন সন্ধ্যের দিকে সালমানকে মন্নতে আসতে দেখা যায়। পাপ্পারাৎজিদের ক্যামেরায় সেই দৃশ্য ধরা পড়েছে।

রবিবার গ্রেফতারির পর আরিয়ানকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে NCB অফিসারেরা। যেমনটা জানা যাচ্ছে ছয় ঘন্টা ধরে জেরা করা হয়েছে আরিয়ানকে। জেরা চলাকালীন আরিয়ান নিজে স্বীকার করেছেন যে তিনি পার্টিতে মাদক সেবন করেছিলেন। এর কিছুক্ষণ পরেই আরিয়ানকে গ্রেফতার করে NCB আধিকারিকেরা। আরিয়ান নিজেই গ্রেফতারি পরোয়ানায় লিখেছেন, ‘আমি বুঝতে পারছি কেন আমায় গ্রেফতার করা হয়েছে। বাড়ির লোকদেরও আমি সেটা জানিয়েছি’।

যে ক্রুজ জাহাজে পার্টি চলছিল সেখান থেকে একধিক মাদকদ্রব্য পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ১৩গ্রাম কোকেন, ৫ গ্রাম MD, ২১ গ্রাম চরস, ২২টি এমডিএমএ পিল। এছাড়াও ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা নোগো পাওয়া গিয়েছে। যে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে তার বেশির ভাগই কারোর জামার সেলাই তো কারোর  ব্যাগের হ্যান্ডেলে লুকানো অবস্থায় মিলেছে। আরিয়ানের ক্ষেত্রে কন্টাক্ট লেন্সের থেকে পাওয়া গিয়েছে মাদক।

Related Articles

Back to top button