খবরগসিপবিনোদনসিনেমা

পেছনে ভয় ষোলো আনা! ফ্লপ হওয়ার আশঙ্কায় ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ ছবির নাম বদলালেন সালমান খান

সালমান খান (Salman Khan) নামটা সমস্ত বলিউডপ্রেমী মানুষের কাছেই বেশ পরিচিত। ইন্ডাস্ট্রির ভাইজান নামেও পরিচিত তিনি। বর্তমানে ৫৬ বছর বয়স হলেও দিব্যি ছবিতে অ্যাকশন চালিয়ে যাচ্ছেন অভিনেতা। তবে একদিনে দক্ষিণী ছবির বাড়বাড়ন্ত তার ওপর শেষ ছবিগুলোর পড়তে থাকা বক্স অফিস কালেকশন বেশ চিন্তায় ফেলে ফিয়েছে তাকে। এমনকি ভাইজানের আগামী ছবি ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ (Kabhi Eid Kabhi Diwali) নিয়েও সেভাবে মাতামাতি নেই অন্য বারের মত।

প্রতিবছরে ঈদের সময় সালমান খান নিজের ছবি রিলিজ করে থাকেন। উৎসবের মরশুমে ছবি রিলিজ করায় ব্যবসার চান্স ভালোই থাকে। কিন্তু প্রতিবারের মত এই ছবির জনপ্রিয়তা তেমন চোখে পড়ছে না। ইতিমধ্যেই ছবির ফার্স্ট লুক শেয়ার হয়ে গিয়েছে। কিন্তু তার পর শুরু হয়েছে বিতর্কের। জানা যাচ্ছে ছবির কাস্টিং নিয়েও বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে। তবে এবার আরও একটি তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে, এবার নাকি ছবির নামটাই পাল্টে ফেলতে চলেছেন সালমান খান।

‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ এর ফার্স্ট লুকে প্রতিবারের মত ছোট করে ছাঁটা চুল নয় বরং লম্বা চুলের লুকে দেখা গিয়েছে সালমানকে। হাতে রয়েছে রড আর সাথে ব্ল্যাক সানগ্লাস নিয়ে অ্যাকশন মোডে ফার্স্ট লুক শেয়ার করতেই ‘রাধে’ এর কথা মনে এসেছে ভক্তদের। কিন্তু বর্তমানে সেসব চর্চা ছেড়ে মূল চর্চা ছবির নামের পরিবর্তন নিয়ে। ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ থেকে নাম পাল্টে নিজের নামেই নাম রাখতে চান তিনি!

ভাবছেন নিজের নামে সিনেমার নাম? আসলে সিনেমার নাম পাল্টে ‘ভাইজান’ করে দিতে চাইছেন সালমান খান। কিন্তু কেউ খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই আরও প্রশ্ন শুরু হয়েছে। হটাৎ কেন পাল্টানো হচ্ছে নাম? আর ভাইজান নামটাই কেন রাখা হচ্ছে?

Salman Khan kabhi Eid Kabhi Diwali Look

যেমনটা জানা যাচ্ছে, ছবির মূল কাহিনী আসলে একটি  পারিবারিক গল্প নিয়েই। যেখানে পরিবারের দাদাকে সবাই ভালোবেসে ভাইজান  বলে ডাকে। তাই ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ এর বদলে ‘ভাইজান’ নামটাই উপযুক্ত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে বি টাউনে এই গুঞ্জনও রয়েছে যে ফ্লপ হওয়ার ভয়েই নাকি ছবির নাম পাল্টে ফেলছেন সালমান খান।

প্রসঙ্গত, ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ ছবিটি এর আগেও বহুবার শিরোনাম এসেছে। একাধিকবার ছবির শুটিংয়ের ডেট পরিবর্তন হয়েছে। ছবির শুটিং শুরু হওয়ার পরে সালমান খানের বোনের বড় আয়ুষ শর্মা ছবি থেকে সরে গিয়েছে। এমনকি  প্রযোজনার দায়িত্ত থাকা সাজিদ নাদিয়াদওয়ালাও সরে গিয়েছেন ছবির থেকে। তাই শেষ পর্যন্ত কি হয় সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।

Related Articles

Back to top button