গসিপবিনোদনসিনেমা

দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রির জেরেই যত ঠাটবাট! এই ৫ছবির হিন্দি রিমেক করেই ২০০০ কোটির মালিক সালমান খান

বলিউডের ভাইজান বলতেই সকলে একডাকে চেনে সালমান খানকে (Salman Khan)। আজ বলিউডের দৌলতেই কোটিপতি হয়ে গিয়েছেন সালমান। তবে বর্তমানে বলিউডকে টেক্কা দিয়ে হুড়মুড়িয়ে এগোচ্ছে দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি (South Indian Film Industry)। দক্ষিণী সিনেমা দেখতে ভিড় হচ্ছে চোখে পড়ার মত। আসলে বলিউড তারকাদের ভাগ্য বদলে দিতেও দক্ষিণী ছবির বড়সড় অবদান রয়েছে। দক্ষিণী ছবির রিমেক (Remake) করে নিজের বলিউডের ভিত পাকা করেছেন সালমান খান।

বর্তমানে বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একাধিপত্য রয়েছে কিছু অভিনেতাদের হাতে। তারমধ্যেই একজন সালমান খান, কিন্তু শুরুতেই এমনটা ছিল না। কেরিয়ারের শুরুর দিকে বলিউডে ছবি পেতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে তাকে। তবে ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ ছবি সুপারহিট হওয়ার পরেই ভাগ্য পাল্টে যায় ভাইজানের।

এরপর অবশ্য স্টারডম বজায় রাখতে দক্ষিণী ছবির ওপরেই ভরসা করেছেন তিনি। অর্থাৎ দক্ষিণী ছবির স্বত্ব কিনে সেগুলো রিমেক করে একেরপর এক সুপারহিট ছবি তৈরী করেছেন বলিউডে। আর সেই সব ছবির জেরেই আজ ২০০০ কোটিরও বেশি সম্পত্তি মালিক সালমান খান। আজ আপনাদের এমনই কিছু ছবির কথা জানাবো যেগুলো আসলে দক্ষিণী ছবির রিমেক।

তেরে নাম  (Tere Naam) : ২০০৩ সালে রিলিজ হওয়া তেরে নাম ছবিটি সালমান খানের কেরিয়ারের মাইলফলক বলা যেতে পারে। ভাইজানের কেরিয়ার যখন প্রায় ডুবতে বসেছিল, তখন এই ছবিটি রিলিজ হয় আর সুপারহিট হয়ে যায়। ছবির সালমান খানের চুলের স্টাইল রিলিজ হওয়ার বহুবছর পর পর্যন্ত জনপ্রিয় ছিল। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না ছবিটি আসলে দক্ষিণী ছবির রিমেক ছিল।

Salman Khan Tere Naam movie

নো এন্ট্রি (No Entry) : ফুল অন কমেডিতে ভরপুর এই ছবিটি ২০০৫ সালে রিলিজ হয়েছিল। ছবিতে সালমান ছাড়াও অনিল কাপুর, ফারদিন খান, এশা দেওল এর মত তারকাদের দেখা গিয়েছিল। ছবিটি বক্স অফিসে ব্যাপক হিট হয়েছিল। তবে অনেকেই জানেন না ছবিটি আসলে তামিল ছবি ‘চার্লি চ্যাপলিন’ এর হিন্দি রিমেক ভার্শন ছিল।

ওয়ান্টেড (Wanted) : ২০০৯ সালে সুপার ডুপার অ্যাকশন সিনেমা ওয়ান্টেড রিলিজ হয়। ছবিটিই রাধে চরিত্রে সালমান খানের অভিনয় ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছিল। তবে ছবিটি আসলে দক্ষিণী সুপারস্টার মহেশ বাবুর ‘পোকারির’ এর হিন্দি রিমেক ছিল।

সালমান খান Salman Khan Kissing in Radhe

বডিগার্ড (Bodyguard) : ২০১১ সালে বক্স অফিস কাঁপিয়েছিল সালমান খানের বডিগার্ড সিনেমাটি। এই ছবিতে শুধু অ্যাকশন নয় সাথে দুর্দান্ত কমেডি থেকে শুরু করে রোমান্স ও ছিল। কিন্তু এই ছবিটিও আসলে মালায়ালম ছবি ‘কাভালান’ এর হিন্দি রিমেক। ছবিতে সালমান খানের বিপরীতে কারিনা কাপুরকে দেখা গিয়েছিল।

রেডি (Ready) : একই বছর আরও একটি সিনেমা রিলিজ হয়ে সালমান খানের, সেটা হল রেডি। এই ছবিতে সালমান খানের বিপরীতে বলি অভিনেত্রী আসীনকে দেখা গিয়েছিল। ছবিতে ভরপুর কমেডি রোম্যান্স থেকে অ্যাকশন দেখানো হয়েছিল। এই ছবিটিও দক্ষিণী ছবিরই রিমেক ছিল।

Related Articles

Back to top button