গসিপবিনোদন

ভাগ্যিস সলমন-অক্ষয় ছিলেন! নাহলে চিটিংবাজ সুকেশকেই বিয়ে করতেন জ্যাকলিন, ফাঁস হল গোপন সত্যি

প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের (Sukesh Chandrasekhar) সঙ্গে সম্পর্কের কারণে এখন চরম বিপাকে পড়েছেন বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ (Jacqueline Fernandez)। যদিও এখনও দু’জনের সম্পর্কের ধরণ সম্বন্ধে পাকাপাকিভাবে জানা যায়নি, তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ছবি থেকে অনুমান প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন দু’জনে। শুধু তাই নয়, এখন শোনা যাচ্ছে, সুকেশকে বিয়েও করতে চাইতেন নায়িকা।

২০০ কোটি টাকার প্রতারণা করা সুকেশ বলি সুন্দরীর বয়ফ্রেন্ড ছিল বলেই জানা যাচ্ছে এবং এই চর্চিত বয়ফ্রেন্ডের থেকে বেশ কিছু দামি দামি উপহার নিয়েই ফেঁসে গিয়েছেন বলি সুন্দরী। তবে শোনা যাচ্ছে, জ্যাকলিন সুকেশের কুকাজের বিষয়ে একেবারেই জানতেন না এমনটা নয়। বরং তাঁকে নাকি সুকেশের থেকে সাবধান থাকার পরামর্শ দিয়েছিলেন বলিউডের দুই সুপারস্টার সলমন খান (Salman Khan) এবং অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar)।

Salman Khan and Akshay Kumar

অনুরাগীরা অনেকেই হয়তো জানেন, সলমন এবং জ্যাকলিন খুব ভালো বন্ধু। ‘কিক’, ‘রেস ৩’ ছবিতে জ্যাকিকে নেওয়া থেকে অভিনেতার ফার্ম হাউসে দু’জনের একসঙ্গে সময় কাটানো, অনুরাগীদের এসব কিছুই অজানা নয়।

অপরদিকে অক্ষয়ও জ্যাকির বেশ কাছের বন্ধু। দু’জনে ‘হাউসফুল’ ফ্র্যাঞ্চাইজি, ‘ব্রাদার্স’, ‘বচ্চন পাণ্ডে’তে একসঙ্গে কাজ করেছেন। সেই থেকেই বেশ ঘনিষ্ঠ বন্ধু হয়ে যান দু’জনে। এবার একটি নামী সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, সলমন এবং অক্ষয় দু’জনেই নাকি জ্যাকলিনকে সুকেশের থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছিলেন।

Jacqueline Fernandez and Sukesh Chandrasekhar

সুকেশের ২০০ কোটির প্রতারণা মামলার সঙ্গে জড়িত পুলিশের একজন সিনিয়র অফিসার এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘ওনাকে (জ্যাকলিন) সুকেশের থেকে সাবধান থাকার পরামর্শ দিয়েছিলেন ওনার সহ-অভিনেতারা। কিন্তু উনি সুকেশের সঙ্গে দেখাসাক্ষাৎ চালিয়ে চান এবং গাড়ি-সহ বিভিন্ন দামি দামি উপহার  নিতেই থাকেন’।

Jacqueline Fernandez

বলি সুন্দরী অবশ্য পুলিশকে সুকেশের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক প্রসঙ্গে বলার সময় জানিয়েছেন, তিনি প্রতারকের বৈবাহিক সম্পর্কের বিষয়ে জানতেন না। তাঁকে বলা হয়েছিল, সুকেশ নাকি লীনা মারিয়া পলের সঙ্গে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন। সুত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, পুলিশের তরফ থেকে জ্যাকলিনকে ৫০টি লিখিত প্রশ্ন এবং ৭৫টি মৌখিক প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button