খবরগসিপবিনোদনসিনেমা

আশংকাই সত্যি হল! দিনে দুপুরে সালমান খানের ওপর প্রাণঘাতী হামলা, অল্পের জন্য বাঁচলেন ভাইজান

তবে কি আশঙ্কাই সত্যি? দিনে দুপুরে প্রাণঘাতী হামলা সালমান খানের (Salman Khan) ওপর! বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই বলিউডের ভাইজানের প্রাণনাশের হুমকি নিয়ে উত্তাল হয়েছিল নেটপাড়া। ইতিমধ্যেই তার সুরক্ষার্থে বডিগার্ড থেকে শুরু করে পুলিশি প্রো টেকশনের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। কিন্তু সবটাই জলে চলে যাবে না তো? আজকের ঘটনায় উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।

বয়স ৫৬ হলেও নিজেকে ফিট রাখতে সচেতন সালমান। অভিনেতার বাবাও  প্রতিদিনই প্রাতঃভ্রমণে যান। কিছুদিন আগে এমনই এক প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে হুমকি পেয়েছিলেন বলিউডের দাবাং অভিনেতার বাবা। একটি চিঠির মাধ্যমে দেওয়া হয়েছিল হুমকি। যেখানে লেখা ছিল, সালমান ও গোটা পরিবারের মুসেওয়ালার মত হাল হবে।

তবে সম্প্রতি চাঞ্চল্যকর খবর প্রকাশ্যে এসেছে। জানা যাচ্ছে অল্পের জন্য এযাত্রায় প্রাণে বেঁচে গেছেন সালমান খান। সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, শুধু হুমকিতে থামেনি এই বিষয়টা। দিনে দুপুরে খুনের চেষ্টাও চালানো হয়েছে। ‘শার্পশুটার’ দিয়ে খুন করার প্লানিং করেছিল গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণই ও তার দলের শাগরেদরা।

ইতিমধ্যেই পুলিশ গায়ক সিধু ও সালমান খানকে দেওয়া হুমকির তদন্তে নেমেছে। সেখান থেকেই উঠে এসেছে বিস্ফোরক সমস্ত তথ্য। জানা যাচ্ছে, সালমান খান যেখানে থাকেন সেই গ্যালাক্সী অ্যাপার্টমেন্টের নজরদারি ছিল ওই গ্যাংয়ের। তাঁরা জানতে পেরেছিল যে সকালে সালমান খান সাইকেল চালাতে বের হন। সেই সময় কোনো বডিগার্ড থাকে না তাঁর সাথে।

সালমান খানকে মারার জন্য এই সময়টাকেই বেছে নিয়েছিল তাঁরা। তারপরেই শার্পশুটার নিয়োগ করা হয়। হকি স্টিকের মধ্যেই অস্ত্র লুকিয়ে রাখছিল। প্ল্যান ছিল সালমান সাইকেল চালিয়ে যাওয়ার সময়েই হামলা করা হবে। কিন্তু প্ল্যান করলেও শেষ অবধি সেটা বাতিল করে দেয় তাঁরা।

তবে ইতিমধ্যেই মুম্বাইয়ের বান্দ্রা থানায় সালমানের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সাথে সাথেই তদন্তে নেমেছে পুলিশ, পাশাপাশি বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সালমান খানের নিরাপত্তাও। অন্যদিকে বর্তমানে যিহারের জেলে বন্দি ওরয়েছে লরেন্স। তাকেও এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের সময়েই সালমানকে মারার প্লানিংয়ের কথা স্বীকার করে সে। জানা যায় লরেন্সের গ্যাংই এর পরিকল্পনা করেছিল।

Related Articles

Back to top button