করিনা এবং সদ্যজাতকে নিয়ে বাড়ি ফিরলেন সইফ ! সঙ্গে ছিলেন ‘দাদা’ তৈমুরও


দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান৷ শুক্রবার থেকেই প্রহর গুনছিলেন সকলে, কখন ফুটফুটে একরত্তি জন্ম নেবে করিনার কোল আলো করে। সন্তান জন্ম দেওয়ার আগেই অভিনেত্রীর বাড়িতে এসে পৌঁছেছে খুদের জন্য একগুচ্ছ উপহার। অবশেষে রবিবার ২১ শে ফেব্রুয়ারীর সকালে নবাব পরিবারে ফের জন্ম নিলো নবাব পুত্তুর। দ্বিতীয় বারেও পুত্র সন্তানের মা হলেন করিনা কাপুর। শনিবার রাতেই অভিনেত্রীকে ভর্তি করা হয়েছিল মুম্বইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালে।

ছোট্ট ভাইকে পেয়ে বেজায় খুশি তৈমুর। আর নবাবের ঘরে দ্বিতীয় সন্তান আসার পর থেকেই তাকে একঝলক দেখাএ জন্য অপেক্ষার প্রহর গুনতে শুরু করেছে নেটিজেন মহল। এখন তৈমুরের দিক থেকে সমস্ত লাইমলাইট কেড়ে নেওয়ার প্রতিযোগী এসে গেছে।

এখনও পর্যন্ত সদ্যজাতর কোনো ছবি বা নাম কিছুই প্রকাশ্যে আনেননি নবাব দম্পতি। তৈমুরের ক্ষেত্রে মিডিয়া তাদের ব্যক্তিগত জীবন চর্যায় বেশ খানিকটা ছাপ ফেলেছিল আর তাইই হয়ত বিরুষ্কার মতোন সইফিনাও এবার সদ্যজাতকে খানিক আড়ালেই বড় করে তুলতে চান৷

আজ হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন করিনা কাপুর খান৷ ছেলে তৈমুরকে নিয়েই স্ত্রী এবং সদ্যজাতকে আনতে গেলেন সইফ। এদিন বাড়ি ফেরার সময় পাপারাজ্জিদের চোখ এড়ালোনা সদ্যজাত। তবে মুখ দেখা না গেলেও ক্যামেরার লেন্সে ধরা পড়েছে একরত্তির এক গোছা চুল। দাদা হয়েছে তৈমুর তাই বাবার কোলে বসে সেও গেছে মা এবং ভাইকে আনতে।

 

এদিকে দাদু রণধীর কাপুরের মতে সদ্যজাতকে নাকি সম্পূর্ণ তৈমুরের মতোই দেখতে হয়েছে। সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানান, ‘আমার তো সব শিশুদের একইরকম দেখতে লাগে, কে জানে… কিন্তু সকলে বলছে একদম দাদার মুখ বসানো। তৈমুরের মতোই নাকি দেখতে হয়েছে ছোট্ট সোনাকে’।


Like it? Share with your friends!

611
611 points