গসিপবিনোদন

ব্রণ ঢাকার জন্য মেকাপ করিনা! কোটি টাকার ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে ‘না’ বলেছিলেন সাই পল্লবী

গালে ব্রণর দাগ ঢাকার জন্য কয়েক পরত মেকাপ লাগিয়ে জোর করে আবেদনময়ী সাজার চেষ্টা কোনোদিন করেননি অভিনেত্রী সাই পল্লবী (Sai Pallavi)। ‘বোল্ড লুকে’ ধরা দিতে বাধ্য হয়ে পরেননি খোলামেলা পোশাকও পরেননি তিনি। সবকিছু মিলিয়ে সহজ, সরল, সাবলীল চরিত্রেই তিনি অপরূপা। মালায়লাম সুপারহিট ছবি ‘প্রেমাম’-এ অভিনয় করে নায়িকা হওয়ার সংজ্ঞাই বদলে দিয়েছিলেন সাই পল্লবী। এতে অভিনয় করে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন তিনি।

২৯ বছর বয়সী দক্ষিণ ভারতের এই অভিনেত্রী সাবলীল অভিনয়েই জিতে নিয়েছেন গোটা দেশের মন। ২০১৭ সালে তেলেগু ভাষার ‘ফিদা’ সিনেমায় অভিনয় করে দর্শকের নজর কাড়েন। ক‌্যারিয়ার দীর্ঘ না হলেও খুব বেছে বেছে কাজ করেন সাই পল্লবী। কাজ এবং নিজের আদর্শের প্রতি নিষ্ঠাবান অভিনেত্রী।

লেখাপড়ায় তুখোড় এই অভিনেত্রী ডাক্তারী ছেড়ে পা দিয়েছেন অভিনয়ের জগতে। অভিনেত্রী না হলে একজন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ হতেন বলে জানিয়েছেন সাই পল্লবী। জর্জিয়া থেকে চিকিৎসা বিজ্ঞান নিয়ে গ্রাজুয়েশনও করেছেন তিনি।

কিন্তু এত জনপ্রিয়তা পেলেও নিজের মতাদর্শের কাছে সৎ তিনি, কখনোই টাকার জন্য মেরুদন্ড বিকিয়ে দেননি তিনি। একবার একটি ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য অভিনেত্রীর কাছে ২ কোটি টাকার অফার এসেছিল, কিন্তু সেই প্রস্তাব এক বাক্যে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

কেন? তার কারণ, গায়ের রং কখনওই সৌন্দর্যের পরিমাপ হতে পারে না। ফেয়ারনেস ক্রিমের প্রচার করা মানে আমাদের দেশীয় মানুষের স্বাভাবিক বর্ণকে অসম্মান করা। তাই সেই বিজ্ঞাপন করতে রাজী হননি অভিনেত্রী।মেকাপ করেও কখনো ব্রণ, দাগছোপ ঢাকেননা তিনি। তার বক্তব্য, “আমি যেরকম সেই আটপৌরে আমাকেই বরণ করে নিয়েছেন দর্শকেরা৷ আমার আমার দেশের লোকও আমারই মতো৷ তারা তাদের সবটুকুর জন্য সুন্দর”

Related Articles

Back to top button