বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

মুখার্জী বাড়িতে দুর্গাপুজো, অতিথি সাহেব প্রফেসর! তাঁর বাংলা শুনে হাসির রোল নেটপাড়ায়

সিরিয়াল প্রেমীদের কাছে বিপুল জনপ্রিয় স্টার জলসার একটি সিরিয়াল হল ‘খড়কুটো'(Khorkuto)। দর্শকদের কাছে এই সিরিয়ালের জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। হাসি-মজায় ভরপুর মুখার্জি পরিবারের যৌথ পারিবারিক সম্পর্কের প্রেক্ষাপটে গুনগুন-সৌজন্যের (Gungun-Soujanyo) খুনসুটি নিয়ে তৈরি হয়েছে এই সিরিয়াল।

সিরিয়ালে নায়ক নায়িকা সৌগুন, চরিত্রের দিক থেকে সম্পূর্ণ ভাবে দুই ভিন্ন মেরুর। তাই আর পাঁচজন বিবাহিত দম্পতির মতোই তাঁদের মধ্যেও মান অভিমান আর ঝগড়াঝাটি থাকলেও তা কখনই তাদের ভালোবাসাকে ছাপিয়ে যেতে পারেনি। তাই শত ভুল বোঝাবুঝির পরেও একে অপরকে চোখে হারায় তারা। তাই নানা বাধা বিপত্তি পেরিয়ে ফের একবার এক হয়েছে সৌজন্য আর গুনগুন।

তবে এখন আর নিজের বৌয়ের সাথে লুকিয়ে দেখা করতে হয় না সৌজন্যকে। এবছর মুখার্জী বাড়িতে ধুমধাম করে দুর্গাপুজো হচ্ছে। আর সেই পুজোর আনন্দে সৌজন্য গুনগুন সহ মেতে উঠেছে গোটা পরিবার। ওদিকে পুজো উপলক্ষে সৌজন্যের বাড়িতে আসছেন তাঁর সাহেব প্রফেসর। সেই উপলক্ষেই পুজোর দিনে বর ক্রেজির আবদার মেটাতে শাড়ি পরে গুনগুন ।

আর গুনগুনের দেওয়া শর্ত মেনে সৌজন্যও ধুতি পাঞ্জাবি পরে আসে। সম্প্রতি সিরিয়ালের একটি ফ্যান পেজের তরফ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে তিন্নি সহ সৌজন্যের বাড়ি এসেছে পৌঁছেছেন তাঁর সাহেব প্রফেসর। বাঙালি সংস্কৃতি,পুজো এসব নিয়ে তিনি রিসার্চ করতে এসেছেন বলে জানা যায়।

 

কিন্তু এসে থেকে ওই সাহেব যা বাংলা বলছেন তা শুনে পেটে খিল ধরার জোগাড় সকলের। বাঙালি বাড়িতে অতিথি আসলে প্রথমেই তাকে বসতে বলা হয়। ওই সাহেবকেও বসতে বলা হলে তিনি বলে ওঠেন ‘আমি বসবে না, আমি নাচবে।’ এরপরেই তিনি চান ঢাক কোথায়। এরপর ঢাকের বোলে খানিক নেচেও নেন তিনি।

Related Articles

Back to top button