খবরবিনোদন

‘বর বাংলা গান বাঁচান বলে, বৌ হিন্দি গানে নাচছে’, আবারও নেটপাড়ায় অপমানিত রূপঙ্করপত্নী চৈতালি

রূপঙ্কর বাগচী (Rupankar Bagchi) নামটা বিগত দিন পনেরোর মধ্যে প্রত্যেকেই শুনে ফেলেছেন। গায়ক হিসেবে জনপ্রিয় হলেও বিখ্যাত গায়ক কেকের বিতর্কে রূপঙ্কর বাগচী নেটপাড়ায় নেটিজেনদের ক্ষোভের শিকার। কেকে (KK) কে নিয়ে যে অপমান জনক কথা তিনি বলেছেন তার জন্য ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি। কিন্তু তাকে ক্ষমা করতে নারাজ ক্ষুদ্ধ নেটিজেনরা। আজ বিতর্ক শুরুর পর প্রায় ২০ দিন হতে চললেও নেটপাড়ায় কটাক্ষের শিকার হচ্ছেন গায়ক ও তাঁর পরিবার।

একসময় সমস্ত ক্ষোভ রূপঙ্কর বাগচীর ওপরে পড়লেও বর্তমানে তাঁর স্ত্রী চৈতালি লাহিড়ীকেও (Chaitali Lahiri) ছেড়ে কথা বলছে না নেটপাড়া। পুরোনো খুঁজে এনে নতুন করে কটাক্ষ করা হচ্ছে গায়কের স্ত্রীকে। সম্প্রতিই রূপঙ্করপত্নীর একটি পুরোনো ভিডিও আবারও ভাইরাল হয়ে পড়েছে। আর সেই ভিডিওতেই কটাক্ষ করা হয়েছে চৈতালি লাহিড়িকে।

পুরোনো এই ভিডিওতে নাচতে দেখা যাচ্ছে রূপঙ্কর পত্নী চৈতালিকে। ভিডিওতে ‘হিন্দি ছবি পরিণীতা’ এর জনপ্রিয় গান ‘ক্যায়সি পহেলি’ এ নাচতে দেখা যাচ্ছে তাকে। ভিডিওটি একসময় বেশ প্রশংসা পেয়েছিল ঠিকই তবে বর্তমানে এই ভিডিওতে কুরুচিকর আক্রমণের শিকার হলেন তিনি।

ভিডিওর কমেন্ট বক্সে নেটিজেনরা নানা কটাক্ষ মূলক কথাবার্তা বলেছেন। হিন্দি গানে নাচতে দেখে এক নেটিজেন মন্তব্য করেছেন, ‘বড় বাংলা বাঁচান বাংলা শিল্পী বাঁচান করে ভিক্ষা চাইছে আর তার বৌ হিন্দি গানে নাচছে’। এরপর আরেকজন কটাক্ষ করে লিখেছেন, ‘ও দিদি! একটু বাংলা গানে নাচুন। বাংলার শিল্প আর শিল্পীদের বাঁচান’। তো কেউ আবার লিখেছেন, ‘অতিরিক্ত বাংলা গান শুনতে শুনতে উনি আজ পাগল হয়ে গেছেন’।

এমন অগুনতি অপমানজনক ও কুরুচিপূর্ণ কমেন্ট দেখা যাচ্ছে ভিডিওটি। তবে নেটিজেনদের একাংশ অবশ্য এই বিতর্ক ও নোংরামি আচরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন। নিজের বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন রূপঙ্করবাবু, এবার এই বিতর্কের ইতি হওয়া উচিত বলেন মনে করেন তাঁরা।

Rupankar Bagchi Chaitali Lahiri trolled in social media for dancing on hindi songs

প্রসঙ্গত, কেকে কলকাতায় শো করার জন্য আসলে ফেসবুক লাইভে এসে, ‘হু ইজ কেকে? আমরা কেকের থেকে ভালো গান গাই’ এমন মন্তব্য করেছিলেন তিনি। তাঁর এই মন্তব্যের জেরেই ক্ষুদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন নেটিজেনরা। তাঁর পরেই মারা যান কেকে, এর ফলে ক্ষোভের আগুনে রীতিমত ঘি পরে। কেকের মৃত্যর পর কটাক্ষে অবিরাম হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে রূপঙ্কর বাগচী ও তাঁর গোটা পরিবারকে। নিজের মন্তব্যের জন্য  সাংবাদিক বৈঠক ডেকে ক্ষমা পর্যন্ত চেয়েছেন তিনি। কিন্তু তাতেও যেন এই বিতর্ক থামার নাম নেই।

Related Articles

Back to top button