গানবিনোদন

কেকে বিতর্কে বয়কট করেছে আমজনতা, দেশাত্মবোধক গানে ধরা দিলেন রূপঙ্কর, ‘ক্ষমা’ নেই জানাল নেটপাড়া

রূপঙ্কর বাগচী (Rupankar Bagchi), গতমাসের শেষ দিনের কিছু আগে পর্যন্ত গায়ক হিসাবে সকলের কাছে জনপ্রিয় ছিলেন তিনি। কিন্তু নিজেরই মন্তব্যের জেরে শিল্পী হয়েও সকলের কটাক্ষের শিকার হয়েছেন তিনি। বিখ্যাত সংগীত শিল্পী কেকে কে নিয়ে করা তাঁর মন্তব্যের জেরে নিন্দার ঝড় উঠেছিল। তারপরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন কেকে, ক্ষুদ্ধ নেটিজেনরা ক্ষোভ ফেটে পড়ে রূপঙ্করের ওপর।

এরপর বেশ কিছুদিন ধরে নেটপাড়ায় তুমুল সমালোচনা ও কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে রূপঙ্কর বাগচী ও তার গোটা পরিবারকে। পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হচ্ছে দকেহে সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে ক্ষমা চেয়ে নেন গায়ক। কিন্তু তাতেও বন্ধ হয়নি ট্রোলিং। এখনো নেটপাড়ায় ট্রোলিং অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু স্বাভাবিক জীবনে তো আবার ফিরতে হবে। তাই  আবারও লাইভ শো শুরু করে দিয়েছেন তিনি।

Rupankar Bagchi mother got rape threats

শুধু তাই নয় ভারত সরকারের জন্যও একটি গানের রেকর্ডিং সেরে ফেলেছেন রূপঙ্কর বাগচী। সম্প্রতি একটি গান বেশ ভাইরাল হয়ে পড়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের হয়ে গান গাইছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের শিল্পীরা। বিশেষ এই গানে সোনু নিগম, সুরেশ ওয়াডকার এর পাশাপাশি রূপঙ্করকেও দেখা গিয়েছে। বাংলা, হিন্দি, তামিল, তেলেগু, মালায়ালম, মারাঠি, গুজরাটি,ওড়িয়া,অসমীয়া ও পাঞ্জাবি এতগুলি ভাষায় করা হয়েছে গানের রেকর্ডিং।

সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে এই গানের ভিডিও শহরে করেছেন শিল্পী রূপঙ্কর। ভিডিও শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘দেশ সেবার এমন একটি প্রকল্পে কাজ করতে পেরে সম্মানিত বোধ করছি’। তবে এই ভিডিওতেও গায়ককে কটাক্ষ করা কিন্তু বন্ধ হয়নি। ভিডিওর কমেন্টে অনেকেই তাকে ট্রোল করে চলেছেন।

তবে অনেকের আবার মন গলেছে পাশে দাঁড়িয়েছেন গায়কের। মানুষ তো নিজের ভুল থেকেই শেখে, এই বলেই শুভাকাঙ্খীরা পাশে দাঁড়িয়েছেন আর এগিয়ে যাওয়ার জন্য সাহস জুগিয়েছেন। কটূক্তি আর কটাক্ষের ভিড়ে এই পাশে থাকার বার্তাই তাকে আগামী দিনে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করবে।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই রূপঙ্করের গাওয়া গান বিখ্যাত কেক কোম্পানি থেকে বাতিল করা হয়ে গিয়েছে। এমনকি অনেকেই তাকে নিয়ে কাজ না করার কথাও বলেছেন। তবে টলিউডেরই প্রযোজক রানা সরকার এগিয়ে এসেছে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে। প্রযোজক বলেন, রূপঙ্করকে বয়কর করছি না। আমি কেকের গান ভালোবাসি, ওনারাও বাসেন, কিন্তু রূপঙ্করদা যেটা বলেছেন সেটা যেমন সমর্থন করছি না, তেমনই কেকের মৃত্যুর জন্য রূপঙ্কর তো কোনোভাবে দায়ী নয়।

Related Articles

Back to top button