বিনোদনসিনেমা

পতিতালয়ের নারী যেন বীরযোদ্ধা! ভিন্ন স্বাদের মাতৃত্বের গল্পে ঋতুপর্ণা এবার ‘মাদার ইন্ডিয়া’

বাংলার জনপ্রিয় যাত্রা শিল্পী তথা অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন পাপিয়া অধিকারী (Papiya Adhikari)। এছাড়া একসময় বাংলিশ সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন চুটিয়ে। পরবর্তীতে বেশ কয়েকটি টেলিফিল্ম ও বাংলা ধারাবাহিকের পরিচালনা করেছিলেন পাপিয়া। দীর্ঘদিন পর ছোট পর্দায় ‘দত্ত অ্যান্ড বউমা’ ধারাবাহিক দিয়ে ফিরেছেন পাপিয়া।

শুধু নয় আগামীদিনে সিনেমার পরিচালক হিসাবেও হাতেখড়ি হতে চলেছে পাপিয়ার। তাঁর প্রথম ছবি ‘মাদার ইন্ডিয়া’ (Mother India)-র মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta)। তবে এখনও পর্যন্ত ছবির বাকি কাস্টিং চূড়ান্ত হয়নি। তবে একটি বিশেষ চরিত্রে রাজেশ শর্মাকে দেখা যেতে পারে বলে খবর। জানা গেছে ছবির চিত্রনাট্যও পাপিয়ার নিজেরই লেখা।

Papiya Adhikari Film with Rituparna Sengupta

 ছবির বিষয়বস্তুর আভাস দিতে গিয়ে পাপিয়া বলেছেন ‘এই গল্পে পতিতালয়ের মেয়েদের নতুন দৃষ্টিভঙ্গি থেকে দেখানোর চেষ্টা করছি। অন্য মেয়েদের বাঁচানোর জন্য এই গল্পের নারীচরিত্ররা যেন এক একজন বীর যোদ্ধা। আবার বকুল ফুলের মতোই তারা শুদ্ধ ও মিষ্টি।’ সব ঠিক থাকলে অক্টোবরেই শুরু হবে ছবির শুটিং।সিরিয়াল থেকে ছুটি নিয়ে শুটিংয়ের কাজ শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন পাপিয়া।

Rituparna Sengupta

আসন্ন সিনেমা ‘মাদার ইন্ডিয়া’ সম্পর্কে ঋতুপর্ণা বলেছেন,‘পাপিয়াদির সঙ্গে অনেক দিনের সম্পর্ক। ওঁর কাছে দুর্দান্ত কনসেপ্ট আশা করেছিলাম। নারী বলেই মেয়েদের নিয়ে এত সুন্দর একটা গল্প ভাবতে পেরেছেন তিনি। আমার চরিত্রে প্রচুর শেড রয়েছে। চরিত্রটির জার্নি শুরু হয় এক ভাবে, গল্পের শেষে বদলে যায় জীবনের সব সমীকরণ।’

সেইসাথে সিনেমায়  নিজের চরিত্র সম্পর্কে বলতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেন ‘গর্ভে সন্তান ধারণ না করলেও মা হওয়া যায়। মাতৃত্ব কী ভাবে ওই নারীচরিত্রের জীবনে উত্তরণ ঘটায়, তাতেই গল্পের মূল সুর ধরা রয়েছে।’ উল্লেখ্য সিনেমার প্লট অনুযায়ী ‘মাদার ইন্ডিয়া’র কেন্দ্রে রয়েছে একজন সুপ্রতিষ্ঠিত নারী। নৃত্যে পারদর্শি উচ্চবংশের সন্তান তিনি। সেই নারীচরিত্রটি পতিতালয়ের নারীদের জীবনে নিয়ে আসে মুক্তির আস্বাদ। সেই মুখ্য চরিত্রেই থাকবেন ঋতুপর্ণা।

Related Articles

Back to top button