বিনোদনসিরিয়াল

ফের বিপদ, শত্রু কখনো বন্ধু হয়না! হিংসার বশে ঊর্মিকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে মেরে ফেলার চেষ্টা রিনির

কথায় আছে ‘শত্রু’ কখনোই বন্ধু হতে পারেনা। আর এবার সেই ঘটনাই ফের প্রমাণ হয়ে গেল বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’ (Amader Ei Poth Jodi Na Sesh Hoy) ধারাবাহিকে। জি বাংলার এই ধারাবাহিকের বয়স বেশিদিন না হলেও, অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই দর্শকদের মধ্যে পাকাপাকিভাবে জায়গা করে নিয়েছে। আর সেই কারণেই টিআরপির দৌড়েও প্রতিনিয়ত এগিয়ে চলেছে ঊর্মি আর সাত্যকি বাবুর লাভ স্টোরি।

আসলে এই ধারাবাহিকের একমাত্র ইউএসপি হল একান্নবর্তী পরিবারের দুর্দান্ত সমীকরণ। ধারাবাহিকের নায়িকা ঊর্মি বড়লোক বাড়িতে বেশ আভিজাত্য বিলাসিতার সাথে বড় হলেও, মধ্যবিত্ত সংসারে খুব কম দিনেই হেসে খেলে মানিয়ে নিয়েছে। তার বড় মনের পরিচয় বারংবার পেয়েছেন দর্শকেরা। আজকালকার সিরিয়ালগুলোতে কূট কাচালি আর পরকীয়াই যেখানে মুখ্য, সেখানে এই ধারাবাহিক এক্কেবারে অন্য ধাঁচের।

কিন্তু এই হাসি খুশি পরিবারেও বারংবার অশান্তি নেমে এসেছে রিনির জন্য। ছোট বেলা থেকেই টুকাই দা ওরফে সাত্যকিকে ভালোবাসে রিনি, তাই ঊর্মিকে কিছুতেই মানতে পারেনা সে। সারাক্ষণ ঊর্মিকে জব্দ করতে একেরপর এক ফন্দি আঁটত সে। একেকসময় এই বালখিল্যতার কারণে বড় বড় সমস্যারও সম্মুখীন হতে হয় মুখার্জি পরিবারকে।

রিনির দুষ্টুবুদ্ধি ধরা পড়তেই ছোট ঠাম্মি একবার উত্তম মধ্যম বকেওছিল তাকে। এরপর আঘাত পেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় রিনি, আর এত ক্ষতির পরেও রিনিকে বাঁচায় ঊর্মি। তার উপর সব অভিমান ভুলে তাকে বেস্টফ্রেন্ড বানায় ঊর্মি। এমনকি সাত্যকির সাথে নিজেদের হানিমুনে রিনিকেও সাথে নিয়ে যায় ঊর্মি।

 

কিন্তু কথায় আছে না কয়লা হাজার ধুলেও সাদা হয়না। রিনির ক্ষেত্রেও এই একই কথা প্রযোজ্য। ঊর্মি রিনিকে বেস্টফ্রেন্ড ভাবলেও রিনির মনে যে একই রকম হিংসায় রয়ে গেছে তা ধরা পড়ল সাম্প্রতিক প্রোমোতে। দেখা যাচ্ছে, ফের ঊর্মির সাথে সাত্যকিকে নিয়ে কথা কাটাকাটি করছে রিনি৷ রিনির বক্তব্য টুকাই দাকে সে দাদা হিসেবে দেখতে পারবেনা, ঊর্মি যেন তাকে ছেড়ে দেয়। ঊর্মি সাফ জানায়, সে সব পারবে কিন্তু সাত্যকি অর্থাৎ তার আদরের টুকাই বাবুকে সে কারোর সাথে ভাগ করে নিতে পারবেনা। আর এই কথা বলা মাত্রই ঊর্মিকে ধাক্কা দিয়ে সমুদ্রে ফেলে দিতে দেখা যায় রিনিকে৷ অন্যদিকে সাত্যকি হন্যে হয়ে খুঁজতে থাকে ঊর্মিকে। এখানেই কি শেষ হয়ে যাবে সাত্যকি ঊর্মির পথ? চিন্তায় নেটিজেনরা।

Related Articles

Back to top button