গসিপবিনোদনসিনেমা

নায়িকা হওয়ার বয়সে মায়ের চরিত্র, অল্প বয়সে শুটিং চলাকালীনই প্রয়াত বলিউডের ‘মা’ রীমা লাগু

সেলুলয়েড দুনিয়ার তথা হিন্দি সিনেমা জগতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী বলা ভালো ‘মা’ (Maa) হলেন রীমা লাগু (Reema Lagoo)। আশির দশকে মাত্র ৩০ বছর বয়সে মা হয়েই আত্মপ্রকাশ ঘটে অভিনেত্রীর। যদিও তার অনেক আগে থেকেই অভিনয়ের সাথে যুক্ত ছিলেন অভিনেত্রী। আসলে অভিনেত্রীর মাও এই পেশার সাথে যুক্ত থাকায় ছোটো থেকেই বাড়িতে ছিল অভিনয়ের পরিবেশ।

জানা যায় রীমা লাগুর মা ছিলেন মরাঠি সিনেমা জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একজন অভিনেত্রী। রিমা নিজেও অভিনয়ের শিখেছেন এই থিয়েটারের মাধ্যমে। সেসময় তিনিও জনপ্রিয় মরাঠি মঞ্চ অভিনেত্রী হয়ে ওঠেন। রাতারাতি তাঁর ব্যাপক নামডাক হয় মারাঠি থিয়েটার (Marathi Theatre) জগতে। প্রসঙ্গত তাঁকে সবাই রীমা নামে চিনলেও তাঁর আসল নাম নয়ন ভাড়গড়ে।

সিনেমার মতোই বর্ণময় ছিল অভিনেত্রীর ব্যাক্তিগত জীবনও। থিয়েটারে অভিনয়ের পাশাপাশি একসময় ব্যাঙ্কের চাকরিও করতেন রীমা লাগু। এসবের মধ্যেই তিনি প্রেমে পড়েন বিবেক লাগুর। পরবর্তীতে ১৯৭৮ সালে বিয়ে করে প্রবেশ করেন সংসার জীবনে। প্রথম দিকে সংসার সুখের হলেও পরবর্তীতে সন্তান জন্মের পর শুরু হয় অশান্তি।বনিবনা না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের।

তবে বিয়ের পরেই সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন রীমা। মারাঠি সিনেমা ‘সিংহাসন’(Sinhaasan)-এর হাত ধরেই আসে প্রথম সুযোগ। একবার মুম্বইয়ের পৃথ্বী থিয়েটারে লেখক পিএল দেশপাণ্ডের ‘মাই ফেয়ার লেডি’(My Fair Lady) নাটকে অভিনয় করছিলেন রিমা। সেসময় নাকি ওই থিয়েটারের মালিক ছিলেন শশী কাপুর। রীমার দাপুটে অভিনয় দেখে পছন্দ হয় তাঁর। এরপরই আসে ‘কলিযুগ’ ছবিতে কাজ করার সুযোগ।

এই ছবির হাত ধরেই পরিচালক গোবিন্দ নিহলানির চোখে পড়েন রীমা। পেয়ে যান তার পরবর্তী ছবি আক্রোশে কাজ করার সুযোগ। এই সিনেমায় কুলভূষণ খারবান্দার সঙ্গে একটি শয্যাদৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে ভীষণ অস্বস্তিতে পড়েছিলেন রীম। এরপরেই মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে শুরু করেন তিনি। ১৯৮৮ সালে মাত্র ৩০ বছর বয়সে কয়ামত সে কয়ামত তক ছবিতে জুহি চাওলার মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন রিমা।

সেই শুরু এরপর কখনও মাধুরী দিক্ষীত কখনও সালমান, শাহরুখ আবার কখনও ১ বছরের ছোটো সঞ্জয় দত্তের মায়ের চরিত্রেও অভিনয় করেছেন রীমা। অভিনয় করেছেন একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিকেও। অভিনয়ের প্রতি তাঁর ভালোবাসা ছিল অগাধ। তাই বোধ হয় অভিনয় করতে করতেই চিরঘুমে চলে যান রিমা। ২০১৭-র ১৭ মে মহেশ ভট্টের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘নামকরণ’-এর শুটিং চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। মাত্র ৫৯ বয়সেই প্রয়াত হন বলিউডের (Bollywood) এই জনপ্রিয় মা।

Related Articles

Back to top button