বিনোদন

বাদুড়, পেঁচা, বানর সহ রকমারি পশু রয়েছে রবিনা ট্যান্ডনের চিড়িয়াখানা থুড়ি বাড়িতে!

নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, যার হলুদ শাড়ির বৃষ্টিভেজা নাচ ‘টিপ টিপ বরসা পানি’ নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা বিশ্বকে। তিনি হলেন রবিনা টন্ডন। কেরিয়ারের শুরু থেকেই লাগাতার হিট ছবি উপহার দিয়ে গেছেন রবিনা। একদিকে তার তুখোড় অভিনয় অন্যদিকে জমিয়ে প্রেম, সবমিলিয়ে তাকে নিয়েই সরগরম থাকতো পেজ-থ্রির পাতা। তবে এবার তিনি অন্য কারণে শিরোনামে।

আগে যে বাড়ি ছিল মানুষের, তা এখন না-মানুষদেরও! সম্প্রতি এমনই কান্ড ঘটিয়েছেন বলিউডের (Bollywood) নামজাদা অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডন (Raveena Tandon)। পোষ্যদের কল্যাণে তাঁর বাড়ি এখন ‘নীলায়া’ যেন ‘ডক্টর ডুলিটলের বাড়ি’, এমনই জানিয়েছেন রবিনা।

আপাতত ৩ পেঁচা, এক বাঁদর, একটি বাদুড়ছানা, বহু পায়রা, টিয়াপাখি ও বিড়ালছানাদের সমাগমে ভরা সংসার রবিনার। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ডক্টর ডুলিটল আদতে হলিউডের (Hollywood) এক কাল্পনিক চরিত্র যিনি পশুপাখিদের ভাষা বুঝে তাদের সঙ্গে বাক্যালাপ করতে সক্ষম!

বাড়ির সদস্যদের কীভাবে খুঁজে পেলেন রবিনা? তাও জানিয়েছেন স্বয়ং অভিনেত্রীই। পেঁচাটি নাকি উড়ে আসে রবিনার বাড়িতে, বাঁদরটি ছিল বাগানের গাছে। বাঁদরের গলায় বকলস দেখার পর তাকে ঘরে আশ্রয় দেন রবিনা। পায়রা, বিড়ালছানাদের পাশাপাশি অসহায় বাদুড়টি আশ্রয় পেয়েছে রবিনার বাড়িতে।

বর্তমানে নিরাপদ গৃহে ফিরে গিয়েছে প্রাণীর দল। জীবজন্তুদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেছে ‘পেটা ইন্ডিয়া’-র কর্মীসদস্যরা। যদিও পেঁচারা রাতের অন্ধকারে সকলের অলক্ষিতেই উড়ে গিয়েছে। ফেসবুকে রবিনার ছবি অনুসারে, কুকুরছানা ও খরগোশরাও রয়েছে রবিনার আশ্রয়ে। বাঁদররা রবিনার বাড়ি থেকে নিরাপদ স্থানে চলে গেলেও বাদুড় সহ বাকিদের দত্তক নিয়েছেন বলিউডের এই বর্ণময়ী অভিনেত্রী।

Related Articles

Back to top button