বিনোদন

বিগবসের ঘরে গিয়েই মনের মানুষ খুঁজে পেলেন শিল্পার বোন! হাতে চুমু দিয়ে শমিতার ঘুম ভাঙালেন রাকেশ

ভারতীয় টেলিভিশনের এক অন্যতম জনপ্রিয় এবং চর্চিত রিয়ালিটি শো হল বিগ বস (Big Boss)। প্রতি বারের মতো এবারেও এই শো নিয়ে দর্শকদের উন্মাদনা রয়েছে তুঙ্গে। এবছর ‘বিগ বস সিজন ১৫’ (Big Boss Season 15)-তে থাকছে একাধিক নতুন চমক। দর্শকদের সমস্ত অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ভুট (VOOT)-এ সম্প্রচার শুরু হয়েছে ‘বিগ বস ওটিটি’র।

বিগবস ওটিটিতে সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন বলিউডের সর্বাধিক চর্চিত পরিচালক করণ জোহার (karan johar) । তার উপর এই সিজনে সকলকে চমকে দিয়ে বিগবসের ঘরে উপস্থিত হয়েছে শিল্পা শেট্টির বোন শমিতা শেট্টি। পর্ণ ব্যবসা জনিত কারণে রাজ কুন্দ্রার গ্রেফতারের পর থেকেই বারংবার উঠে এসেছে শমিতার নাম।

সত্যি বলতে পারিবারিক নানান কারণে শমিতার উপর দিয়ে কার্যত ঝড় বয়ে যাচ্ছে কয়েক দিন যাবত। এবার সেই ক্ষততেই যেন ক্রমে মলম লাগাচ্ছেন বিগবসের প্রতিযোগী রাকেশ বাপত। শোয়ের শুরুতেই রাকেশকে লাল হৃদয় দিয়েছিলেন শিল্পা ভগ্নি, আর সেদিন থেকে রাকেশের ও মনে হতে শুরু করে তিনি শমিতার হয়ে গিয়েছেন।

সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো আপলোড হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ক্যাপশনে লেখা, “এই কানেএকশন রাকেশ গ্রহণ করেছেন – কবুল হ্যায়, কবুল হ্যায়, কবুল হ্যায়। ওদের জুটি ভাল লাগলে লাইক করুন আপনারা।” সেই ভিডিয়োতেই রাকেশ শমিতার উদ্দেশ্যে বলেছেন, তাঁর শামিতাকে নিজের বলে মনে হয়, “আমি শমিতার, শমিতাও আমার।”

 

বিগবসের বাড়িতে এই দুই জনকে আলাদা দেখাই যাচ্ছেনা। সারাক্ষণই শমিতাকে আদরে যত্নে রাখছেন রাকেশ। হাতে চুমু খেয়ে শমিতাকে ঘুম থেকে তুলতেও দেখা যায় রাকেশকে৷ এই ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

প্রসঙ্গত, শমিতা বিগবস প্রসঙ্গে আগেই বলেছেন, কোনো কিছুর জন্যই কোনোকিছু থেমে থাকেনা। যতক্ষণ নিঃশ্বাস নিতে পারব কাজ করে যাব। তিনি আরো জানান, এত কিছুর হওয়ার আগেই নাকি বিগবসে আসার জন্য রাজী হয়েছিলেন তিনি। মাঝে পরিবারের উপর দিয়ে এতটা ঝড় বয়ে গেল। কিন্তু তার বক্তব্য, “কিন্তু একবার যখন বলে দিয়েছি তখন সেখান থেকে মুখ ফেরানো উচিত নয়।” এদিকে শমিতার ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, আগে থেকে শমিতার কাছে কোনো প্রস্তাবই যায়নি। কেবলমাত্র শো-য়ের টিআরপি বাড়ানোর জন্য বিগবস অন এয়ার হওয়ার মাত্র ৪ দিন আগে তার কাছে প্রস্তাব পৌঁছায়।

Related Articles

Back to top button