খবরবিনোদন

প্রতারণার শিকার অভিনেত্রী শুভশ্রীর দিদি, বিয়ের দুমাস যেতেই হাজতবাসে দেবশ্রীর স্বামী

মাস দুয়েক আগেই বিয়ে সেরেছিলেন অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলির (subhashree ganguly) দিদি দেবশ্রী গাঙ্গুলী (debashree ganguly)। অমিত ভাটিয়া (amit bhatiya)নামের ব্যক্তির সাথে বিয়ে হয়েছিল দেবশ্রীর। কিন্তু সম্প্রতি অমিতকে গ্রেফতার করেছে টেকনো সিটি থানার পুলিশ। গত শুক্রবার রাতে বাগুইআটির জ্যাংরা থেকেগ্রেফতার করা হয়েছে তাঁকে। এবছরের ২রা এপ্রিল দীর্ঘ ৭ বছরের বন্ধুত্ব থেকে হওয়া প্রেমকে স্বীকৃতি দিয়েই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন দেবশ্রী।

বন্ধুত্ব ৭ বছরের হলেও  প্রেম ছিল মাত্র  ২৮ দিনের। এরপরেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ঝটপট বিয়ে সেরে ফেলেন দেবশ্রী ও অমিত। তাদের বিয়ের পর শুভশ্রীর স্বামী রাজ চক্রবর্তী ইতিমধ্যেই ভোটে জিতে বিধায়ক পদ পেয়েছেন। দেবশ্রীর বাড়িতে একটি ১৮ বছরের সন্তান রয়েছে, তার পরেও প্রেমকে স্বীকৃতি দিয়ে বিয়েতে রাজি হয়েছিলেন তিনি।

বিয়ে নিয়ে নানা কথা উঠেছিল সোশ্যাল মিডিয়াতে। তবে অনেক শুভ কামনাও পেয়েছিলেন। শুভশ্রী নিজে দেবশ্রীর বিয়ের ছবি শেয়ার করেছিলেন যা বেশ ভাইরাল হয়ে  পড়েছিল। রাজ-শুভশ্রী ও ভেবেছিল এবার  সুখী সংসার করবে দেবশ্রী। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পরেই ভুল ভেঙে যায় দেবশ্রীর। শশুরবাড়িতে শুরু হয় অত্যাচার।

বিয়ের মাত্র ১০ দিন পেরোতেই নানাভাবে অত্যাচার শুরু হয় দেবশ্রীর ওপর। শেষমেশ সহ্য না করতে পেরে ১৭ তারিখ টেকনো সিটি থানায় গত ১৭ই জুন অভিনয় দায়ের করেন দেবশ্রী। অভিযোগের পর তদন্তে নাম পুলিশ। তদন্তে জানা যায় এর আগে একটি ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত। সেই মামলায় জামিনে ছাড়া পেয়েছে সে।

পুলিশের এই বক্তব্য শুনে দেবশ্রী বুঝতে পারে, তাকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েই তাকে বিয়ে করেছিল অমিত ভাটিয়া। এরপর দেবশ্রী শুধু অমিত নয়  বরং তার মা দীপালি ভাটিয়ার নামেও অভিনয় জানিয়েছেন। দেবশ্রীর মতে ছেলেকে কেউ  কুকর্মে সাহায্য করতে মা দীপালি ভাটিয়া। বর্তমানে পুলিশ তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে। এবার অপেক্ষা আসল সত্যিটা সামনে আসার।

Related Articles

Back to top button