রেসিপি

পেঁয়াজ রসুন ছাড়া রান্নাতেও দুর্দান্ত স্বাদ, রইল একেবারে নিরামিষ ওল কচুর তরকারি তৈরির রেসিপি

মন ভালো করার সহজ উপায়ের মধ্যে একটা হল ভালো খাওয়া দাওয়া। আর ভালো খাওয়া দাওয়া মানেই নেই সবসময় মাছ মাংস হতে হবে তার কিন্তু কোনো মানে নেই। পেঁয়াজ রসুন ছাড়া নিরামিষ রান্নাতেও জিভে জল চলে আস্তে পারে। আর আজ বংট্রেন্ডের পর্দায় এমনই একটি নিরামিষ রান্না, ওল কচুর তরকারি তৈরির রেসিপি (Ol Kochu Tarkari Recipe)।

Ol Kochu Tarkari Recipe

নিরামিষ ওল কচুর তরকারি তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

১. ওল, কচু
২. আলু
৩. কাঁচা লঙ্কা
৪. তেজ পাতা, শুকনো লঙ্কা,
৫. গোটা জিরে, হিং
৬. পাতি লেবুরস রস
৭. হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো,
৮. ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো
৯. পরিমাণ মত নুন
১০. স্বাদের জন্য সামান্য চিনি
১১. রান্নার জন্য তেল

নিরামিষ ওল কচুর তরকারি তৈরির পদ্ধতিঃ

➥ প্রথমে ওল কচু আর আলু খোসা ছাড়িয়ে ডুমো ডুমো করে কেটে ভালো করে জল দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে।

➥ এরপর কড়ায় কিছুটা সর্ষের তেল গরম করে তাতে সামান্য গোটা জিরে, তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা ও হিং দিয়ে ফোঁড়ন দিয়ে ৩০ সেকেন্ড মত নেড়েচেড়ে নিতে হবে।

Ol Kochu Tarkari Recipe

➥ ফোঁড়ন দেওয়া হয়ে গেলে কড়ায় ওল কচু দিয়ে কিছুক্ষণ ভেজে নিতে হবে। এরপর আলুর টুকরো দিয়ে আবার কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে ভেজে নিতে হবে। আর আলু দিয়ে ২ মিনিট মত নেড়েচেড়ে নেওয়ার পর একটা গোটা পাতিলেবুর রস দিয়ে আবারও কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে নিয়ে পরিমাণ নুন মিশিয়ে নিতে হবে।

Ol Kochu Tarkari Recipe

➥ এবার কড়ায় পরিমাণ মত হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো দিয়ে সবটা ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। ২-৩ মিনিট ভালো করে কষিয়ে নিয়ে সামান্য চিনি ছড়িয়ে দিতে হবে স্বাদের জন্য। চিনি দিয়ে আবারও একবার ভালো করে মিক্স করে নিতে হবে।

Ol Kochu Tarkari Recipe

➥ কষানো হয়ে গেলে পরিমাণ মত জল ও পরিমাণ মত গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মিক্স করে দু তিনটে কাঁচা লঙ্কা দিয়ে ১০ মিনিট মত ঢাকনা দিয়ে মিডিয়াম আঁচে রান্না করতে হবে। কারণ ওল সেদ্ধ হতে কিছুটা সময় লাগে, তবে মাঝে ঢাকনা খুলে একটু নেড়েচেড়ে দিতে হবে।

Ol Kochu Tarkari Recipe 6

➥ ১০ মিনিট রান্না করে নিলেই রান্না প্রায় শেষ, এবার আবারও একবার সবটা নেড়েচেড়ে মিক্স করে নিলেই ওল কচুর নিরামিষ তরকারি একেবারে তৈরী। এই রান্না দুপুরের ভাতের সাথে বা রাতে রুটির সাথেও খেতে পারেন। ছোট থেকে বড় সবারই এই রান্না পছন্দ হবে।

Related Articles

Back to top button