বিনোদন

না ফেরার দেশে পুনীত কুমার! বন্ধুর শেষ ইচ্ছা পূরণে নিজের সম্পত্তি বিক্রি করলেন তেলেগু নায়ক

গত ২৯ শে অক্টোবর আচমকা মৃত্যু হয় বিখ্যাত কন্নড় অভিনেতা পুনীত কুমারের (Punith kumar)। মাত্র ৪৬ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান অভিনেতা। কেবল অভিনেতা বা সেলিব্রিটি ছিলেন না তিনি। দুঃস্থদের জন্য তিনি ছিলেন ভগবান। তাই তাঁর চলে যাওয়াও চলচ্চিত্র জগতে যেমন হাহাকার তৈরি হয়েছে, তেমন দুঃস্থ দরিদ্ররাও হারিয়েছেন মাথার উপরের ছাদটুকু। পুনীতের ভরসাতেই ছিলেন অনেকে। বেঁচে থাকতে ১,৮০০ জন অনাথ মেয়েকে দত্তক নিয়েছিলেন পুনীত। আজ তারা বাবাহারা।

তবে তিনি না থাকলেও তাঁর মানবিকতা, আদর্শ, চিন্তা এত সহজে হারিয়ে ফেলতে চাননা পুনীতের ঘনিষ্ঠ বন্ধু তথা তেলেগু অভিনেতা বিশাল। পুনীত চলে যাওয়ার পর সেই অসহায় মেয়েদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন অভিনেতা। বিশালের বক্তব্য, “পুনীত আমার সত্যিকারের বন্ধু ছিল৷ ওর স্বপ্ন আমি পূরণ করব। ১,৮০০ জন ছেলেমেয়ে বিনামূল্যে পড়াশোনা করার সুযোগ পাচ্ছিল। আমি নিজের টাকা এবং শক্তি খরচ করে ফের ওদের ওই সুযোগ করে দেব। ওদের জন্য প্রয়োজনে নিজের সম্পত্তিও বিক্রি করে দেব।’’

পুনীতকে হারানোর শোক মেনে নিতে পারেননি তার অসংখ্য অনুরাগীরাই। হৃদরোগে মৃত্যু হয় অভিনেতার। পুনীতের প্রয়াণে শোকগ্রস্ত হয়ে আরও তিন অনুরাগীর মৃত্যু হয়। তার মধ্যে দু’জন আত্মহত্যা করেন। তৃতীয় জন হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন।

অভিনেতার মৃত্যুর দিন সকালে বুকে ব্যথা নিয়ে বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে ভর্তি হিয়েছিলেন অভিনেতা৷ এরপর তাকে আইসিইউ ইউনিটে রাখা হয়, কিন্তু ক্রমেই তার অবস্থার অবনতি হচ্ছিল বলে খবর হাসপাতাল সূত্রে। তবু শেষ রক্ষা হয়নি কিছুসময়ের মধ্যেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন পুনীত। পুনীতের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ। অভিনেতা সিদ্ধার্থ তার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে পুনীতের মৃত্যুর খবর জানিয়ে শোক প্রকাশ করেন।

Related Articles

Back to top button