বিনোদন

৮৭ বছরের বৃদ্ধা থেকে, সদ্যজাতকে নিয়ে বাবা মায়েরা আগলালেন পুনীতের সমাধি ! ঢল নামল ৩০ হাজার ভক্তের

প্রায় দু’সপ্তাহ হয়ে গেল আমাদের মধ্যে নেই পুনীত কুমার। গত ২৯ শে অক্টোবর আচমকা মৃত্যু হয় বিখ্যাত কন্নড় অভিনেতা পুনীত কুমারের (Punith kumar)। মাত্র ৪৬ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান অভিনেতা। কেবল অভিনেতা বা সেলিব্রিটি ছিলেন না তিনি। দুঃস্থদের জন্য তিনি ছিলেন ভগবান। তাই অভিনেতার মৃত্যু আজও মানতে পারছেন না দক্ষিণের লাখো লাখো ভক্তরা। প্রতি দিন প্রায় তার সমাধির কাছে জড়ো হচ্ছেন ৩০ হাজার অনুরাগী। চোখের জলে ভেজাচ্ছেন প্রয়াত অভিনেতার শেষ আশ্রয়টুকুকে।

ব্যবসায়ী শিবকুমার তাঁর বড় ছেলের নাম রেখেছেন পুনীতের নামে। নিজের দুই সন্তানকে নিয়ে পুনীতের সমাধিতে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তিনি। ছোট ছেলেকে কাঁধে নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করেছেন তিনি। শিবকুমারের কথায়, ‘‘কেবল তাঁর অভিনয়ের জন্য নয়, সমাজের প্রতি তাঁর কর্তব্যবোধের জন্যও আমরা মুগ্ধ।’’

cropped-Puneeth-Rajkumar.jpg

প্রয়াত অভিনেতার আরেক ভক্ত ধর্মেশ তাঁর স্ত্রী এবং ছ’মাসের সদ্যজাত সন্তানকে নিয়ে কান্তিরাভা স্টুডিয়োয় পৌঁছেছেন পুনীতকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে। ৮৭ বছরের নানজন্মাও পুনীতের মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোক পেয়েছেন। ৩০০ জন পুলিশ কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে পুনীতের সমাধিতে। ভিড় সামলানোর জন্য। সকাল ৯টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত বেঙ্গালুরুর আউটার রিং রোডের এই সমাধিস্থলে ভক্তদের সমাগমের অনুমতি দিয়েছে পুলিশ। রোজ কর্ণাটকের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভীড় জমাচ্ছেন ভক্তরা।

পুনীতকে হারানোর শোক মেনে নিতে পারেননি তার অসংখ্য অনুরাগীরাই। হৃদরোগে মৃত্যু হয় অভিনেতার। পুনীতের প্রয়াণে শোকগ্রস্ত হয়ে আরও তিন অনুরাগীর মৃত্যু হয়। তার মধ্যে দু’জন আত্মহত্যা করেন। তৃতীয় জন হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন।

অভিনেতার মৃত্যুর দিন সকালে বুকে ব্যথা নিয়ে বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে ভর্তি হিয়েছিলেন অভিনেতা৷ এরপর তাকে আইসিইউ ইউনিটে রাখা হয়, কিন্তু ক্রমেই তার অবস্থার অবনতি হচ্ছিল বলে খবর হাসপাতাল সূত্রে। তবু শেষ রক্ষা হয়নি কিছুসময়ের মধ্যেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন পুনীত। পুনীতের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ। অভিনেতা সিদ্ধার্থ তার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে পুনীতের মৃত্যুর খবর জানিয়ে শোক প্রকাশ করেন।

Related Articles

Back to top button