গসিপবিনোদন

কোনোও কৃতজ্ঞতা নেই ভাইজানের ! অথচ প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জীর দয়াতেই আজ সুপারস্টার সলমান খান

বলিউডের তাবড় অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে পর্দা ভাগ করে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন একমাত্র প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prasenjit Chatterjee) । ঐশ্বর্য রাই থেকে শুরু করে মাধুরী দীক্ষিত, রানি মুখার্জি সকলের সঙ্গেই অভিনয় করেছেন বুম্বাদা। গত কয়েক দশক ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে এক চেটিয়া রাজ করে চলেছেন অভিনেতা। এখনো পর্যন্ত প্রায় কয়েক শো সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করে ফেলেছেন বুম্বা দা।

অভিনয় যেন তার রক্তে। তার বাবা ছিলেন বলিউড তথা টলিউডের নামজাদা জনপ্রিয় অভিনেতা বিশ্বজিৎ চ্যাটার্জি। বাবার পরিচালিত ছবি ‘ছোট্ট জিজ্ঞাসা’র মাধ‍্যমেই প্রথম অভিনয় জগতেৎ পা রাখেন প্রসেনজিৎ। তারপর থেকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

Salman Khan Smile Reaction

টলিউডের পাশাপাশি বলিউডেও অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ। ১৯৯০ সালে আঁধিয়া ও ১৯৯১ তে মিত মেরে মন কে, এই দুটি ছবিতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। তবে টলিউডের মতো বলিউড কোনো দিনই আপন করে নেয়নি প্রসেনজিৎকে। দুটি ছবিই চূড়ান্ত ফ্লপ হয়েছিল।

তবে এর আগেও বলিউডে সুযোগ পেয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। ‘ম‍্যায়নে পেয়ার কিয়া’ ও ‘সাজন’ এই দুটি সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেন সলমন খান (Salman khan), এবং ভাইজানের কেরিয়ারের শুরুর দিকের এই দুটি ছবিই সুপার হিট হয়েছিল। কিন্তু একথা অনেকেই জানেন না সলমনের বদলে প্রথমে প্রসেনজিতের কাছেই এসেছিল প্রস্তাব।

কিন্তু প্রসেনজিৎ দুটি ছবি করতেই অস্বীকার করেন। তারপর সেই প্রস্তাব গিয়ে পৌঁছায় ভাইজানের কাছে। আর ভাগ‍্য খুলে যায় ভাইজানের। আর তারপর বলিউডে পা রাখলেও বিশেষ সুবিধা করতে পারেননি প্রসেনজিৎ। কিন্তু টলিউড তাকে আপন করে নিয়েছে৷ কথায় আছে ‘তিনি প্রসেনজিৎ, তিনিই ইন্ডাস্ট্রি’।

Related Articles

Back to top button