বিনোদন

দীপাবলির আগেই আলো ঝলমলে মন্নত! গুনধর শাহরুখ পুত্রকে স্বাগত জানাতে ঢাকঢোল পিটিয়ে চলছে উৎসব

টানা ২৩ দিন জেলের ঘানি টেনে প্রায় ২৮ দিন পর অবশেষে শনিবার সকালে মন্নত ফিরলেন শাহরুখের বড় ছেলে আরিয়ান খান (Aryan Khan)। মাদক কান্ডে গ্রেফতার হয়ে প্রায় এক মাসের কাছাকাছি জেলের ভাতই জুটেছে শাহরুখের বড় ছেলের। বারবার তার জামিনের আবেদন বাতিল করে দেওয়ার পর শেষ দফায় গত তিনদিন ধরে চলেছে শুনানি। শেষে বৃহস্পতিবার বোম্বে হাইকোর্ট থেকে জামিন পান আরিয়ান।

তবে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার মধ্যে জামিনের কাগজপত্র আর্থার রোড কারাগারে না পৌঁছাতে পারায় আরও একট রাত কারাগারেই কাটাতে হয় আরিয়ানকে। ছেলেকে ছাড়াতে সক্কাল সক্কালই যথাস্থানে পৌঁছে গিয়েছিলেন স্বয়ং কিং খান। ঘরের ছেলে ফিরবে ঘরে, তাই মন্নতের বাইরে কাল রাত থেকেই চলছে উৎসবের মেজাজ।

শনিবার সকাল থেকেই মন্নতের বাইরে ভীড় জমেছে বলি বাদশার শুভাকাঙ্ক্ষীদের। যেন কোনোও রাজকার্য সম্পন্ন করে ঘরে ফিরেছেন মন্নতের রাজপুত্তুর। আর সেই আনন্দেই দীপাবলির আগেই আলোয় সেজে উঠেছে মন্নত। ছেলেকে ফিরে পেয়ে খুশি গৌরী খানও। এদিকে মন্নতের বাইরেও গতকাল রাত থেকেই শাহরুখভক্তরা প্ল্যাকার্ড হাতে বসে রয়েছে আরিয়ানের স্বাগত করার জন্য।

অভিনেত্রী জুহি চাওলা আরিয়ান খানের জামিনের ১ লক্ষ টাকার বন্ডে সই করেছেন। জামিন মেলার পরেও শাহরুখ পুত্রকে আর সব অপরাধীদের মতোই ট্রিট করা হয়েছে। কাগজ না দেখাতে পারলে ছাড় নেই। এই প্রসঙ্গে এক জেল আধিকারিক পিটিআইকে জানান, আমরা কাউকে বিশেষ সুবিধা দেব না। আইন সবার জন্য সমান। জামিনের কাগজপত্র পাওয়ার সময়সীমা ছিল বিকাল সাড়ে ৫টা। তা পার হয়ে গেছে। তাই তাঁকে মুক্তি দেওয়া হবে না।”

তবে জামিনে মুক্তি পেলেও সমস্যা শেষ হয়নি। বোম্বে হাইকোর্টে জামিন মঞ্জুর হয়েও রয়েছে ১৪টি শর্ত। সেই সমস্ত শর্ত মানলে তবেই বজায় থাকবে জামিন। যার মধ্যে উল্লেখ্য, প্রতি শুক্রবার NCB দফতরে হাজিরা দিতে হবে আরিয়ানকে। কোনো ধরণের পার্টি করা যাবে না। মামলার সাথে জড়িত এমন কারোর সাথে কোনো ধরণের যোগাযোগ করা চলবে না। এমনকি আরিয়ানের পাসপোর্ট জমা রাখতে হবে NDPS আদালতে। এছাড়াও আরো বেশ কিছু শর্ত রয়েছে।

Related Articles

Back to top button