খবরবিনোদনসিনেমা

‘এই সময়টায় তোর থাকা খুব দরকার ছিল রে!’ ঋতুপর্ণ স্মরণে আবেগঘন পোস্ট করলেন প্রসেজিৎ

টলিউডের জগতের এক স্মরণীয় পরিচালক হলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ(Rituparno Ghosh)। তার নামটাই যথেষ্ট রুচিবোধযুক্ত সিনেমাপ্রেমীদের জন্য। আজ থেকে আট বছর  আগে ২০১৩ এর সকালে বাংলা চলচ্চিত্র জগৎকে কাঁদিয়ে চির বিদায় জানিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মতে বাংলা চলচ্চিত্র জগতের নক্ষত্র পতন হয়ে গিয়েছিল তার অকাল মৃত্যুতে। ৮ বছর আগে আজকের দিনেই প্রয়াত হয়েছিলেন বিখ্যাত ও অদ্বিতীয় বাঙালি পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষ।

টলিউডের ছবি পরিচালনার সাথে যুক্ত থাকার দরুন বহু অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাথে কাজ করেছেন ঋতুপর্ণ। তাদের মধ্যে খুব কাছের একজন ছিলেন টলিউডের বুম্বাদা। তাই আজ মৃত্যু দিবসে স্মৃতির পাতায় ঋতুপর্ণকে মনে করছেন প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী (Prasenjit Chatterjee)। ঋতুপর্ণ স্মৃতিতে অভিনেতা নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি পোস্ট করেছেন।

Rituparno Ghosh

পোস্টে বুম্বাদা লিখেছেন, ‘৮ বছর হয়ে গেছে তোর কোনো মেসেজ নেই, বকাঝকা নেই, সাক্ষাৎ হয় না, ঝগড়া হয় না, নতুন নতুন গল্প নিয়ে আলোচনা হয় না। কিন্তু তুই আছিস – আমাদের মনে, আমাদের কথাবার্তায় তুই চির বর্তমান। এই সময়টায় তোর থাকা খুব দরকার ছিল রে। ভালো থাকিস ঋতু’।

Rituparno Ghosh Prasenjit Chatterjee

ঋতুপর্ণ ঘোষ বরাবরই চর্চিত হতেন টলিউডে তার লিঙ্গের কারণে। সামান্য একটি অ্যাড এজেন্সি থেকে পথ চলা শুরু করে আজ বাংলা চলচ্চিত্র জগতের উজ্জ্বল নক্ষত্রের একটি তিনি। ‘হীরের আংটি’ ছবি ছিল তার প্রথম কাজ। নিজের ছবির মধ্যে দিয়ে বহুবার সমকামীতা, নারী চরিত্রের প্রাধান্য ও তৃতীয় লিঙ্গের কাহিনী খুবই বাস্তবরূপে তুলে ধরেছেন বহুবার। যে সময় প্রসেনজিৎ মূলত ব্যবসায়িক ছবি করে বেশ নাম করেছেন সেই সময় অন্য ধরণের চরিত্রে তুলে তাকে তুলে ধরেছিলেন পরিচালক।

আসলে ঋতুপর্ণ ঘোষের সাথে প্রসেনজিতের সম্পর্ক তা অভিনেতা ও পরিচালকের মত নয়, বরং ছিল বন্ধুত্বের। ‘চোখের বালি’, ‘দোসর’, ‘নৌকাডুবি’ এর মত একাধিক অসাধারণ চলচ্চিত্রে একত্রে কাজ করেছেন ঋতুপর্ণ ও প্রসেনজিৎ। তবে প্রথম ছবি ‘১৯এপ্রিল’ থেকেই তাদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। যেটা শেষ দিন পর্যন্ত ছিল অমলীন।

Related Articles

Back to top button