গসিপবিনোদনসিনেমা

দাদার কীর্তি থেকে গুরুদক্ষিণায় অভিনয় ছিল প্রশংসনীয়, তাপস পালের জন্মদিনে স্মৃতিচারণ বুম্বাদার

বাংলা সিনেমার জগতে খুব কম অভিনেতা ছিলেন যারা শান্ত প্রকৃতির চরিত্রের জন্য পরিচিত ছিলেন। প্রয়াত অভিনেতা তাপস পাল (Tapas Pal) ছিলেন তাদের মধ্যে একজন। আজ ২৯শে সেপ্টেম্বর অভিনেতার জন্মবার্ষিকী। আর জন্মদিনে তাপস পালের সহ অভিনেতা তথা টলিউডে ইন্ডাস্ট্রির বিখ্যাত অভিনেতা  প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prasenjit Chatterjee) পুরোনো দিনের কিছু স্মৃতি শেয়ার করে তাঁর শিল্পীসত্তার প্রশংসা করেছেন।

সেই আশির দশকে সিনেমার জগতে প্রবেশ করেছিলেন তাপস পাল। তরুণ মজুমদারের দাদার কীর্তি ছবি দিয়ে শুরু হয়েছিল টলিউডে অভিনয়ের যাত্রা। ছবিতে তার অভিনয় নজর করেছিল সকলের। দাদার কীর্তিতে অভিনয়ের দৌলতে ইন্ডাস্ট্রির শান্ত ছেলে তকমা পেয়েছিলেন তাপস পাল। পাশাপাশি এসেছিল আরও কাজের সুযোগ। তবে নিজের শান্তশিষ্ট চরিত্র ছাড়াও অ্যাকশনেও সমানভাবে দক্ষ ছিলেন তিনি।

‘উত্তরা’, ‘মন্দ মেয়ের উপাখ্যান’ ইত্যাদি ছবিতে নিজের শান্ত ছবিটা পাল্টে দিয়েছিলেন অভিনেতা। তবে তার অভিনয় বরাবরই প্রশংসিত হয়েছিল। সন্ধ্যা রায়, দেবশ্রী রায়, মহুয়া রায়চৌধুরীর মত একাধিক অভিনেত্রীদের সাথে কাজ করেছেন অভিনেতা। ১৯৮৬ সালে মুনমুন সেনের সাথে ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন।

অভিনয় জীবনের পরে যোগ দিয়েছিলেন রাজনীতিতেও। তবে রাজনীতির থেকে বেশি নিজের অভিনয়ের জন্যই প্রশংসিত ও জনপ্রিয় ছিলেন তাপস পাল। আজ তার জন্মদিন উপলক্ষে টলিউডের সুপারস্টার বুম্বাদা নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ছবি শেয়ার করেছেন। ছবিতে তাপস পালের সাথে দেখা যাচ্ছে  প্রসেনজিৎকে। ছবিটি শেয়ার করে তাকে স্মরণ করার কথা জানিয়েছেন সকলের প্রিয় বুম্বাদা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Prosenjit Chatterjee (@prosenstar)

প্রসেনজিৎ লিখেছেন, ‘‘দাদার কীর্তি’ হোক বা ‘গুরুদক্ষিণা’… ‘নয়নের আলো’ বা ‘ত্যাগ’… তাপসের প্রতিটা সিনেমা তার অসাধারণ শিল্পীসত্তা তুলে ধরেছে আমাদের সামনে’। ইতিমধ্যেই সেই ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। অসংখ্য অনুগামীরা প্রসেনজিতের কথার সাথে একমত হয়েছেন। বিশেষত দাদার কীর্তি ও গুরুদক্ষিণা সিনেমা যে আজও দর্শকদের মনে গেঁথে রয়ে গেছে সেটা বোঝাই যাচ্ছে দর্শকদের মতামত দেখলেই।

Related Articles

Back to top button