গসিপবিনোদন

টাকা পেলে সমাজের ক্ষতি করতেও রাজি! বলিউডের ‘গুটখা স্টার’দের প্রকাশ্যে ধুয়ে দিলেন প্রকাশ ঝা

অজয় দেবগণ (Ajay Devgan) থেকে শুরু করে অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar) হয়ে শাহরুখ খান (Shahrukh Khan), বলিউডের বহু অভিনেতাকে (Bollywood stars) আমরা গুটখার বিজ্ঞাপন দিতে দেখেছি। এই নিয়ে কম বিতর্কও হয়নি। বিতর্কের জেরেই প্রকাশ্যে ক্ষমাও চেয়েছিলেন ‘খিলাড়ি’ অক্ষয়। এবার ফের সেই বিতর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন বলিপাড়ার নামী পরিচালক প্রকাশ ঝা (Prakash Jha)। যা নিয়ে শুরু হয়েছে চর্চা।

সম্প্রতি বলিউডের যে সকল তারকারা পান মশলা, গুটখার বিজ্ঞাপন দেন তাঁদের ঠুকে মন্তব্য করেছেন ‘গঙ্গাজল’, ‘আশ্রম’এর নির্মাতা। প্রকাশ বলেন, ওনাদের ছবির বিষয়বস্তু নিয়ে কোনও মাথা ব্যথা থাকবে না তো, কারণ পান মশলার বিজ্ঞাপন করে তো ওনাদের ব্যাঙ্কে ৫০ কোটি টাকা ঢুকেই যাচ্ছে। সঙ্গেই তাঁর প্রশ্ন, ‘এমন কিংবদন্তি অভিনেতারা এগুলি কী করছেন?’

Ajay Devgn Shah Rukh Khan pan masala advertisement

একটি নামী সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতার সময় এই বিষয়ে মুখ খোলেন প্রকাশ। তিনি বলেন, বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ৫-৬ জন এমন তারকা রয়েছেন যারা তাঁর সঙ্গে কাজ করবেনই না। কারণ সেই সকল তারকারা গুটখার বিজ্ঞাপন করে টাকা আয় করেই খুশি। নেটিজেনদের একাংশের অনুমান, প্রকাশ নিজের বক্তব্যের মাধ্যমে অজয় দেবগণ, অক্ষয় কুমারদেরই পরোক্ষভাবে একহাত নিয়েছেন।

শুধু এখানেই থামেননি প্রকাশ, বলিপাড়ার নামী পরিচালক একজন স্কুলের অধ্যক্ষের ঘটনাও সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেন। সংশ্লিষ্ট ঘটনার স্মৃতিচারণা করে ‘আশ্রম’ সিরিজের নির্মাতা বলেন একবার এক স্কুলের অধ্যক্ষ তাঁকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, ‘মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আপনারা কী করছেন?’ এই প্রশ্নের সঙ্গেই সেই স্কুলের অধ্যক্ষ জানিয়েছিলেন, তারকাদের পান মশলার বিজ্ঞাপনের বড় বড় হোর্ডিংয়ের জন্য শিশুদের ওপর খুবই খারাপ প্রভাব পড়ছে।

Prakash Jha

এরপরই বলিউডের ছবির ক্রমাগত মান খারাপ হওয়া নিয়েও মুখ খোলেন প্রকাশ। তিনি বলেন, একজন অভিনেতা যখন জানেন যে তিনি ৪০০ কোটি টাকা আয় করে ফেলেছেন, তাহলে ছবির কনটেন্ট নিয়ে কেন মাথা ঘামাবেন!  যদিও এরপর প্রকাশ বলেন, ‘একজন অভিনেতা অবশ্য কনটেন্ট তৈরি করেন না। একজন লেখক এবং পরিচালক তৈরি করেন। যদি সেই লেখক এবং পরিচালক সময় নেন, তাহলে তাঁরা ভালো কিছু তৈরি করতে পারেন’।

সবশেষে চলতে থাকা ‘বয়কট ট্রেন্ড’ নিয়েও মুখ খোলেন প্রকাশ। ‘অপহরণ’, ‘রাজনীতি’ খ্যাত পরিচালক এরপর বলেন, যদি আপনার কাছে ভালো গল্প থাকে বলার জন্য, তাহলে ট্রেন্ড নিয়ে ভাবার কোনও প্রয়োজন পড়ে না। যদিও পরিচালকের মতে, সিনেমা এবং টিভির এই কর্পোরেট ওয়ার্ল্ডে কেউ ‘আসল’ সিনেমা বানায় না, প্রত্যেকেই ‘ফালতু’ জিনিসই তৈরি করে।

Related Articles

Back to top button