বিনোদন

নুসরত বাদ! হাজার বিতর্কের মাঝেই একের পর এক নতুন ছবিতে সই করলেন পরীমনি

বাংলাদেশের বিখ্যাত নায়িকা পরীমনি (Pori Moni)। গতমাসে মাদক কাণ্ডে নাম জড়ানোই বাড়ি থেকেই গ্রেফতার করা হয়েছিল নায়িকাকে। গ্রেফতার হবার পর ব্যাপক ট্রলিং শুরু হয়েছিল তাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে। ২৬ দিন জেলে ছিলেন অভিনেত্রী, শেষে ১লা সেপ্টেম্বর জেল থেকে ছাড়া পান তিনি।

তবে এ বাংলার নুসরত এবং ওপার বাংলার পরীমনি দুই অভিনেত্রীকে নিয়েই ট্রোলিং আর বিতর্ক অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু এই দুই অভিনেত্রীর আত্মবিশ্বাস এসবকিছুর উর্ধে। জীবনে যাই ঘটে যাক, তারা তাদের লক্ষ্যে এবং কাজে অবিচল৷ ট্রোলারদের কথা গায়ে মাখতে নারাজ অভিনেত্রীরা।

Pori Moni

জেল থেকে ছাড়া পাবার দিন রীতিমত উচ্ছাসে ফেটে পড়েন অভিনেত্রী পরীমনি। ভিড় জমে গিয়েছিল জেলের সামনে। জেল থেকে ছাড়া পাবার সময় কোনো লুকোচুরি নয়, বরং একেবারে রাজকীয় স্টাইলে বেরিয়ে এসেছিলেন অভিনেত্রী। জেল থেকে বেরোনোর আগাম খবর পেয়ে তাকে দেখতে জেলের সামনে হাজির হয়েছিল অসংখ্য ভক্তগণেরা।

দিন কয়েক আগে সংবাদমাধ্যমকে অভিনেত্রী সাফ জানিয়েছিলেন, নিন্দুকের মুখে ছাই দিয়েই নিজের কাজ করে দেখিয়ে দেবেন তিনি। যেমন বলা তেমন কাজ, মাদক কাণ্ডের বিতর্ককে একপাশে সরিয়ে রেখে পরীমণি একের পর এক ছবি, সিরিজ সই করে ফেলছেন। সম্প্রতি পরীমণি সই করলেন গিয়াসউদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় তৈরি ছবি ‘গুনিন’। যেটি দেখা যাবে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে।।

জানা যাচ্ছে এই সিরিজে প্রথমে অভিনয় করার কথা ছিল জনপ্রিয় বাংলাদেশী অভিনেত্রী নুসরত ফারিয়ার, কিন্তু ডেট না মেলায় নুসরতের জায়গায় পরিচালক পরীমনিকে বাছেন। শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে পরীমনি এই ছবির চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন। ‘গুনিনে’র রাবেয়া চরিত্রে পরীমণিকে নির্বাচনের কারণে হিসেবে গিয়াস উদ্দিন সেলিম জানান, ‘পরীমণির সঙ্গে আগে আমার কাজের অভিজ্ঞতা আছে; আমার মনে হয়েছে রাবেয়া চরিত্রে ও ভাল করবে’।

Related Articles

Back to top button