গরমের একঘেয়ে পটলকে বানান চটকদার! রইল পোড়া পটলের ভর্তার রেসিপি


গরমের খুবই জনপ্রিয় একটি সবজি হলো পটল। কিন্তু অনেকেই পটল খেতে ভালো বাসেননা। পটল কিছুটা শসা ও ক্ষীরা গোত্রের উদ্ভিদ। এটি খেতেও উপাদেয়। পটল স্যুপ, তরকারী, ভাজা এমনকী মিষ্টান্ন প্রস্তুতিতেও ব্যবহৃত হয়।পটল দিয়ে নানা রকমের খাবার করা হয়।

এছাড়াও ,তাজা পটল হজমশক্তি বাড়ায়। কাশি, জ্বর, রক্তদুষ্টি ভাল করে । হার্টের শক্তি বৃদ্ধি, পিত্তজ্বর, কৃমি সাড়ায় এবং শরীর ঠান্ডা রাখে। তাছাড়াও — পটলের অগণিত স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা অনেকেই জানেন না। এই সবজিটি একটি পুষ্টিকর খাদ্য। এতে ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ১, ভিটামিন বি ২ ও ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। আয়ুর্বেদে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সমাধানে ব্যবহার করা হয়।

কিন্তু রোজ রোজ আবার এই পটল খেতে একঘেয়ে লাগতে পারে। তাই আজ আপনাদের জন্য রইল স্বাদে গন্ধে অতুলনীয় পোড়া পটলের ভর্তা রেসিপি ;

পোড়া পটলের ভর্তা বানাতে লাগবে :

পটল ৬টা,আলু ১ টা,পিয়াজ কুচি,শুকনো মরিচ ভাজা( নিজের ইচ্ছে মত) সরিষার তেল,লবন স্বাদমতো

প্রণালি :

পটলের উপরের অংশে আচড়ে ফেলে দিতে হবে, তারপর পুড়িয়ে নিতে হবে কম আচেঁ ভালো করে। একটা আলু সিদ্ধ করে পটলের সাথে খুব ভালো ভাবে মেখে নিয়ে, কাচাঁপিয়াজ কুচি,ভাজা মরিচ, লবন সরিষার তেল দিয়ে মেখে ভর্তা করে নিতে হবে।আর সাথে সাথে গরম ভাতে পরিবেশন করতে হবে। দারুণ মজার ভর্তা।