গসিপবিনোদনসিনেমা

৫৬ পেরিয়েও শখ ষোলো আনা! একডজন প্রেম সত্ত্বেও হয়নি বিয়ে, এবার বিদেশী পাত্রী খুঁজছেন সালমান!

বলিউডের মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলার বলতে সকলেই একডাকে সালমান খানকেই (Salman Khan) চেনেন। বর্তমানে ৫৬ বছর বয়স হলেও অভিনেতা আজ অবিবাহিত রয়ে গিয়েছেন। এমন নয় যে কোনো প্রেমের সম্পর্কে জড়াননি ভাইজান। বললিউডের এখদিক অভিনেত্রীর সাথে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে বেশ চর্চা হয়েছে সর্বত্র তবে এখনো বিয়ে করেননি তিনি। এমনকি শুধু অবিবাহিতই নয়, নিজেকে ভার্জিন বলেও দাবি করেন সালমান খান।

সালমান খানের বিয়ে নিয়ে একাধিকবার গুজব রটেছে। বহুবার দাবি করা হয়েছে যে বিয়ে করছেন সালমান খান (Salman Khan Wedding)। কিন্তু ভক্তদের নিরাশ করে প্রতিবারই বিয়ের খবর ভুয়ো বেরিয়েছে। আজও ভাইজান সিঙ্গেলই রয়ে গিয়েছেন। তবে শুরুতে কিন্তু এভাবে সারাজীবন এক কাটানোর ইচ্ছা ছিল না মোটেই। সালমান খান নিজেই একসময় বলেছিলেন যে, ‘ঠিক সময় বিয়ে করলে এতদিনে দাদু হয়ে যেতাম’।

তবে এবার হয়তো বিয়ের সানাই বাজতে পারে সালমান খানের। কারণ এবার এক বিদেশী অভিনেত্রী সালমানকে  নিজের ভালোবাসার কথা জানিয়েছেন। ভাবছেন কোন দেশীয় সুন্দরী বলিউডের ভাইজানের প্রেমে পড়ল? আসলে মীরা (Meera) নামের পাকিস্তানি এক অভিনেত্রী নিজের প্রেম নিবেদন করেছেন ভাইজানকে।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে হাজির হয়েছিলেন অভিনেত্রী।  সেখানেই তিনি বলেন, ভাইজান যদি তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন তাহলে কখনোই না করবেন না। তাছাড়া আমি এখনও অবিবাহিত আর কোনো প্রেমিক নেই। তাই পৃথিবীর সবথেকে বড় সুপারস্টার সালমান খান যদি বিয়ের প্রস্তাব দেন তাতে না করার প্রশ্নই ওঠ না।

Pakistani Actress Meera would like to marry salman khan

পাকিস্তানি এই অভিনেত্রী অবশ্য এই প্রথম চর্চায় উঠে আসেন নি। এর আগেও নিজেই ব্যক্তিগত জীবনের কারণে চর্চায় উঠে এসেছিলেন অভিনেত্রী। এর আগে এক ব্যক্তি মীরাকে নিজের স্ত্রী হিসাবে দাবি করেন। এমনকি এই ঘটনা আদালত পর্যন্তও পৌঁছেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত অভিনেত্রীই জিতে যান আর প্রমাণ হয়  ওই ব্যক্তি তার স্বামী নন।

প্রসঙ্গত, ভারতীয় সুপারস্টার হলেও সালমান খানের জনপ্রিয়তা কিন্তু রয়েছে গোটা বিশ্বে। আর পাকিস্তান তার ব্যতিক্রম নয়, তাই সেখানেও লক্ষ লক্ষ ফ্যান রয়েছে তার। মীরার আগে ১৬ বছর বয়সে সালমানের প্রেমে পড়ে পাকিস্তান ছেড়ে বলিউডে এসেছিলেন সোমি আলী। দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্কেও ছিলেন তাঁরা। তবে সেই সম্পর্ক টেকেনি।

Related Articles

Back to top button