বিনোদনসিনেমা

বউ ভক্ত অঙ্কুশ! ঐন্দ্রিলা ছাড়া অন্য নারীর দিকে চোখ তুলেও দেখেন না অভিনেতা

পুজোর বাজারে এবার বক্সঅফিস কাঁপাতে আসছে একগুচ্ছ বাংলা সিনেমা। একদিকে দেবের ‘গোলন্দাজ’, অন্যদিকে জিতের ‘বাজি’। একই দিনে মুক্তি পেতে চলেছে দেবের প্রযোজনায় ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’। যা থেকে বোঝাই যাচ্ছে বাংলার দুই সুপারস্টারের মধ্যে হতে চলেছে জোরদার টক্কর। তবে ছবির বাজারে পিছিয়ে নেই অভিনেতা অঙ্কুশ হাজারাও (Ankush Hazra)।

আগামী ১০ অক্টোবর মুক্তি পেতে চলেছে জয়দীপ মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee) প্রযোজিত ক্রাইম থ্রিলার ‘এফ আই আর’ (FIR)। ‘এফআইআর’ ছবিতে অভিনেত্রী ঋতাভরীর চক্রবর্তীর পাশাপাশি প্রথম বার অভিনেতা বনি সেনগুপ্তর (Bony Sengupta) সাথে অভিনয় করতে দেখা যাবে অঙ্কুশ হাজরা কে। সদ্য মুক্তি পেয়েছে সিনেমার ট্রেলার। অনিরুদ্ধ দাশগুপ্তর সাথে যৌথ ভাবে ছবির চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন পরিচালক জয়দীপ।

 

ছবিতে অঙ্কুশ সিনিয়র পুলিশ অফিসার অভ্রজিৎ দত্তের ভূমিকায়, এবং বনি দুর্নীতিগ্রস্ত জুনিয়র অফিসার নরেন দাসের চরিত্রে থাকবেন। দু’জনের চরিত্রের রসায়ন সম্পর্কে অঙ্কুশ মনে করেন, ‘ওদের মধ্যে আদর্শের লড়াই, ঠান্ডা যুদ্ধ রয়েছে। আবার পারস্পরিক ভালবাসার জায়গাও রয়েছে।’ এপ্রসঙ্গে বনি বলেন, ‘অভ্রজিৎকে দেখে নরেনও নিজের কাজ সম্পর্কে সিরিয়াস হয়। ’অঙ্কুশ এবং বনি প্রথমবার একসাথে একই সিনেমায় অভিনয় করলেও তাঁদের মধ্যে মিল রয়েছে একাধিক।

তাঁর মধ্যে অন্যতম হল তাঁরা দুজনেই ‘ওয়ান ওম্যান ম্যান’। তাই এখনও বিয়ে না করলেও অঙ্কুশ ঐন্দ্রিলার সাথে এবং বনি কৌশানীর সাথে দীর্ঘদিন ধরেই ‘হ্যাপিলি কমিটেড’। বনি-কৌশানী জুটির বেশ কয়েকটি ছবি ইতিমধ্যে হয়ে গেলেও। অঙ্কুশ এবং ঐন্দ্রিলাকে এ বছরই প্রথম একসঙ্গে দেখা গিয়েছে ‘ম্যাজিক’ ছবিতে।তবে কৌশানীর সাথে একাধিক সিনেমায় অভিনয় করার অভিজ্ঞতা থেকে বনি মনে করেন পর্দায় নিজের প্রেমিকার সাথে রোম্যান্স করা অনেক বেশি সহজ।

Ankush Hazra Oindrila Sen অঙ্কুশ ঐন্দ্রিলা

কিন্তু অঙ্কুশ তেমনটা মনে করেন না। তিনি আবার অন্য নায়িকাদের সঙ্গে রোম্যান্স বেশি উপভোগ করেন। সম্প্রতি অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা এবং বনির এক সাক্ষাৎকারে সংবাদমাধ্যমের কাছে অঙ্কুশ নিজে মুখে জানিয়েছেন তিনি স্বার্থপর। অঙ্কুশের কথায় ‘টাকা জমিয়ে আমি আগে নিজের জন্য কিছু কিনি। তার পরে অন্যরা উপহার চাইলে বলি, ‘টাকা শেষ! সরি!’ আমি কিপটে নই, স্বার্থপর।’’ আর ঐন্দ্রিলাকে উপহার দেওয়ার প্রসঙ্গে তিনি পরিস্কার জানালেন ‘ওকে দিতে হয় না, ও ছিনিয়ে নেয়!’

Related Articles

Back to top button