খবরবিনোদনসিনেমা

‘কাজ নেই তো ঘর ঝাড় দে’, পা ভেঙে বিছানায় অঙ্কুশ, বিয়ের আগেই হবু বরকে হুকুম ঐন্দ্রিলার!

টলিউডের (Tollywood) সেলেব্রিটি জুটিদের মধ্যে অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra) আর ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen) জুটি সকলের কাছেই বেশ পরিচিত। দীর্ঘ দিন ধরেই টলিউডের লাভবার্ডস হয়ে রয়েছেন দুজনে। বিয়েটাও সেরেই ফেলতেন বিয়ের পর থাকার জন্য নতুন ফ্ল্যাটও কেনা হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। কিন্তু করোনা মহামারীর দাপটে সবকিছু ঘেটে গিয়েছে তাই আপাতত হবু হয়েই রয়ে গিয়েছেন দুজনে।

ঐন্দ্রিলাকে একসময় সিরিয়ালে দেখা গেলেও বর্তমানে টলিউডের সিনেমাতেই দেখা যাচ্ছে। এদিকে অঙ্কুশ সিনেমার পাশাপাশি রিয়্যালিটি শোয়ের সঞ্চালনার দায়িত্বও সামলে নেন বেশ ভালোভাবেই। বাংলার নাচের জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘ডান্স বাংলা ডান্স’ এ সঞ্চালকের ভূমিকায় ছিলেন অঙ্কুশ। তবে ভাঙা পা নিয়েই ৫০ দিন ধরে শুটিং চালিয়ে গেছেন অভিনেতা।

Ankush Hazra Oindrila Sen

অবশ্য শুধু রিয়্যালিটি শো নয়, আসন্ন ছবি ‘লাভ ম্যারেজ’ এর জন্য শুটিংও  চালিয়ে গিয়েছিলেন একই সাথে। আর ভাঙা পা নিয়ে এই সমস্ত কিছু করে অবস্থা খারাপ হয়ে গিয়েছে অঙ্কুশের। বর্তমানে কাজের থেকে বিরতি নিয়ে বাড়িতে শয্যাশায়ী আঁকিস। তবে অঙ্কুশ ঐন্দ্রিলা ভক্তরা জানেনই যে সোশ্যাল মিডিয়াতে দুজনেই বেশ সক্রিয়।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে ‘প্রশ্ন উত্তর’ খেলায় মেতেছিলেন দুজনে। সেখানে ভক্তদের থেকে পাওয়া প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন ইনস্টাগ্রামে। অঙ্কুশ নিজের ইনস্টাগ্রামে লিখেছিলেন, ‘সম্পূর্ণ শয্যাশায়ী পা ভাঙার কারণে। চলো চ্যাট করি’। সেখানে ঐন্দ্রিলা লিখেছেন, ‘কোনো কাজ নেই তো ঘর তা ঝাড়ু দে না রে’। এমন কথা দেখে অঙ্কুশও বলেছেন, এই জন্যই আমি উটকো লোকের সাথে কথা বলা পছন্দ করি না।

প্রসঙ্গত, যেমনটা জানা যাচ্ছে আপাতত ১০ দিন শয্যাশায়ী থাকতে হবে অঙ্কুশকে। অভিনেতার পায়ের ব্যাথা মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে গিয়েছে রীতিমত পা নাড়তেও পারছেন না তিনি। ব্যাথা না কমলে অপারেশন করতে হতে পারে। তাই ডাক্তারের পরামর্শ মত একেবারে বিশ্রামে আছেন অভিনেতা। আশা করা যায় শীঘ্রই সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন অঙ্কুশ।

Related Articles

Back to top button