খবরবিনোদনসিনেমা

মৃত্যুর পর কিভাবে হবে সৎকার? দাহ নাকি দাফন! নেটপাড়ায় কুরুচিকর ট্রোলের শিকার নুসরত

টলিপাড়ার অভিনেত্রী নুসরত জাহানকে (Nusrat Jahan) নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল চর্চা অব্যাহত। নিজের বৈবাহিক সম্পর্কের কারণে সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রায়শই ট্রোলের শিকার হচ্ছেন অভিনেত্রী। স্বামী নিখিলের সাথে নাকি বিয়েই হয়নি তার! এদিকে দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর সাথে না থাকলেও গর্ভবতী নুসরত। এসবের মাঝে অভিনেতা  যশ দাশগুপ্তর সাথে নাকি সম্পর্ক রয়েছে নুসরতের এই নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন ওঠে। সব মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চরম ট্রোলের শিকার হচ্ছেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি অভিনেত্রী নিজের দুটি ছবি শেয়ার করেছিলেন ইনস্টাগ্রামে। ছবিটি শেয়ার হতেই ফের কুরুচিকর ট্রোলের শিকার হলেন নুসরত। এক নেটিজেন সরাসরি অভিনেত্রীর মৃত্যুকামনা করেই ট্রোল করে বসলেন। নুসরত আসলে নিজের ছবি শেয়ার করে ট্রোলারদের উদ্দেশ্যে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। ছবির ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘ সার ছড়াচ্ছি লোকেদের দিকে, যাতে তারা বড় হয়ে উঠতে পারে’।

Nusrat Jahan Instagram Post

কিন্তু অভিনেত্রীর এই ট্রোলারদের প্রতি পোস্ট হিতে বিপরীত হয়েছে। নেটিজেনদের মধ্যে একজন নুসরতের পোস্টে মন্তব্য করেছেন, ‘মারা যাওয়ার আগে বলে যায়ে, তোমাকে দাহ করা হবে, নাকি দাফন ?’ এই মন্তব্যের পর কমেন্ট বক্সেই আবারো শুরু হয়েছে চর্চা। কারোর মতে আপনাদের মত লোকেদের জন্য পোস্টের ক্যাপশন। তো কেউ কেউ আবার সাপর্ট করেছেন নেটিজেনদের প্রশ্নটিকে।

নুসরত জাহান Nusrat Jahan

আসলে নুসরতের মা হবার প্রসঙ্গেই এই ট্রোল করা হয়েছে। কারণ মা হবার খবর প্রকাশ্যে এসেছে ইতিমধ্যেই। সাথে প্রকাশ পেয়েছে নুসরতের বেবিবাম্পের ছবি। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কে নুসরতের সন্তানের বাবা সেটা এখনো প্রকাশ্যে আনেন নি অভিনেত্রী। এই কারণেই নেটিজেনদের ট্রোলের মুখে পড়তে হচ্ছ অভিনেত্রীকে। অবশ্য শুধুই ট্রোলাররা নয়, ইন্ডাস্ট্রির আরেক অভিনেত্রী  মধুমিতাও খোঁচা মেরেছে নুসরতকে।

মধুমিতার মতে, আমি মা হলে অন্তত বাবার নামটা প্রকাশ্যে আনতাম। যদিও নুসরত না বললেও যেহেতু অভিনেতা যশের  সাথে সম্পর্কের গুঞ্জন রয়েছে তাই অনেকেরই ধারণা যশই নুসরতের সন্তানের বাবা! তবে এটা গুজব মাত্র। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই নুসরতের প্রোফাইলে একটি ছবিতে একটি কুকুরকে দেখা গিয়েছে যাকে এর আগে যশের সাথে দেখা গিয়েছিল। তাই নেটিজেনদের মত হয়তো একসাথেই থাকছেন তারা দুজন।

Related Articles

Back to top button