খবরবিনোদনসিনেমা

শুধু ছেলে আরিয়ান নয়, বাবাকেও ছাড়েনি! এয়ারপোর্টে শাহরুখ খানকে আটক করেছিলেন স্বামীর ওয়াংখেড়ে

বলিউডের তারকা শাহরুখের ছেলেকে গ্রেফতার করে রীতিমত শিরোনামে রয়েছেন সমীর ওয়াংখেড়ে (sameer wankhede)। একপ্রকার বলিউডের ড্র্যাগ অ্যাডিক্টদের জন্য ভয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছেন তিনি। গতবছর থেকেই একেরপর এক নামি সেলেব্রিটিদের জেলের ঘানি টানিয়ে ছেড়েছেন তিনি। সুশান্ত মামলায় রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করেছিলেন এবার শাহরুখপুত্র আরিয়ানকে পাঠিয়েছেন জেলে।

একপ্রকার ভয় পেয়েই নিজের পরিচিতি গড়ে তুলেছেন স্বামীর ওয়াংখেড়ে। সম্প্রতি আরিয়ান খানকে গ্রেফতার করেছেন ঠিকই। তবে এর আগে আরিয়ানের বাবা শাহরুখ খানকেও ছাড়েননি তিনি। একবার কিং খানকেও বড়সড় সমস্যায় ফেলে দিয়েছিলেন NCB এর এই দাবাং অফিসার। যদিও সেবারে অল্পের ওপর দিয়ে ছাড়া পেয়ে গিয়েছিলেন কিং খান। তবে এবারে ছেলেকে এত সহজে রেহাই দিতে রাজি নন তিনি।

কিং খানকে নাকানি চোবানি খাওয়ানোর ঘটনাটা প্রত্যেক দশক আগের। সপরিবারে বিদেশে ঘুরতে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান। সেখান থেকে ফেরার সময় এয়ারপোর্টে আসতেই পথ আটকেছিলেন সমীর ওয়াংখেড়ে। সেই সময় তিনি ছিলেন শুল্ক বিভাগের ডেপুটি কালেক্টর। বিদেশ থেকে একগাদা জিনিসপত্র কেনাকাটি করে দেশে ফিরেছিলেন শাহরুখ খান। সাথে ছিল ২০টি ব্যাগ, যেটা নিয়মের উলঙ্ঘন।

সেই সময় মুম্বাই এয়ারপোর্টে শাহরুখকে আটক করে দেড় লক্ষ টাকা ফাইন করেছিলেন সমীর ওয়াংখেড়ে। সেদিনের সেই দিন আর সম্প্রতি হওয়া ঘটনা। যেমনটা জানা যায় সাধারণ যাত্রীর ছদ্দবেশেই জাহাজে উঠেছিলেন অফিসার। এরপর তল্লাশি নিয়ে একাধিক মাদক উদ্ধার করেছেন তিনি। সাথে গ্রেফতার করেন আরিয়ান সহ বেশ কয়েকজনকে।

NCBএর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কোকেন ১৩ গ্রাম, এমডি ৫ গ্রাম, ২২ গ্রাম মত চরস, ২২টি এমডিএমএ পিল উদ্ধার করা হয়েছে জাহাজ থেকে। সাথে নগদ ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা পাওয়া গিয়েছে। কেউ জামার সেলাইয়ে তো মেয়েরা স্যানিটারি প্যাডের ভেতরে লুকিয়ে রেখেছিল ড্রাগস। শাহরুখ পুত্র আরিয়ান কন্ট্যাক্ট লেন্সের বক্সে ভোরে রেখেছিল ড্রাগস। ইতিমধ্যেই আরিয়ানের জামিনের আর্জি জানানো হয়েছে কোর্টে। যদিও তাতে খুব একটা সুরাহা হয়নি। আপাতত আগামী শুনানি পর্যন্ত আর্থার রোডের জেলেই ঠাঁই হয়েছে আরিয়ানের।

Related Articles

Back to top button